অভিনেতা ফারহানের বিরুদ্ধে এক তরুণীর থানায় জিডি

রেডিও নেক্সট এ রেডিও জকি হিসেবেই মিডিয়া জগতে হাতেখড়ি মুশফিক রহমান ফারহান এর। সেখান থেকেই উঠে আসেন অভিনয় জগতে। এ পর্যন্ত বেশ অনেকগুলো নাটকেই কাজ করেছেন ফারহান।

সম্প্রতি সাামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে ফারহানের একটি ফোন কল রেকর্ড। যেখানে শোনা যায় এক তরুণীকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেছে সে।

এ কল রেকর্ডের বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সেই তরুণী বলেন:

ফারহানের সাথে তার দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল কিন্তু ফারহান তাকেসহ আরও একাধিক মেয়ের সাথেই সম্পর্কে আছেন। তাছাড়া ফারহান যে বিবাহিত ছিল সেই কথাও গোপন করেছিলো তার কাছে।

তরুণী এ বিষয়ে বলে তাদের সম্পর্কের ৮ মাস পর সে জানতে পারে ফারহান বিবাহিত এবং তাদের মাঝে কোনো ডিভোর্স তখনও হয়নি। এ বিষয়ে তরুণী জানতে চাইলে ফারহান বলে তুমি আমাকে ৫ লাখ টাকা দাও আমি কাবিন দিয়ে ডিভোর্স করে দেই।

আর কল রেকর্ড এর বিষয়ে তরুণী আরও বলে সেখানে সাদিয়াও নাদিয়া নামে ২টি মেয়ের নাম উল্লেখ করা হয়েছে যার মধ্যে সাদিয়া তার স্ত্রী ও নাদিয়া তার আমেরিকান গার্লফ্রেন্ড।

তিনি আরও বলেন, ফারহান টিনএইজ মেয়েদের টার্গেট করতো তারপর ইমোশনালভাবে প্রেমের জালে জড়াতো এবং শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের পর ছেড়ে দিতো। এছাড়া অফিসেও মেয়েদের নানাভাবে উত্তক্ত করতো ফারহান। ২০১৮ সালে একই অফিসে কাজ করা কালে এই তরুণীর গায়ে হাত তুলে যা নিয়ে অফিসে অভিযোগ করলে ফারহান তা স্বীকারও করেছিল তবে এ নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

মাদকাসক্ত বলে ফারহানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তরুণীর। সেক্ষেত্রে সম্পর্ক থাকাকালে প্রায় একাধিকবারই ফারহান এ তরুণীর গায়ে হাত তুলেছে। এসকল কারণে এই তরুণী সম্পর্ক না রাখার সিদ্ধান্ত নিলে ফারহান তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং মেরে ফেলার হুমকি দেয়। যার ফলে তরুণী ঢাকার শের-ই-বাংলা নগর থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে। আর এ বিষয়ে পুলিশকর্তৃপক্ষ তাকে আশ্বস্ত করেন যদি ফারহান আর কোনো বাজে একটা স্টেপও নেয় তাহলে পুলিশ কর্তৃপক্ষ ফারহানকে অবশ্যই জেলখানায় বন্দি করবে।

এসকল বিষয়ে জানাতে ফারহানের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে কোনো গণমাধ্যমেই ফারহান কোনো যোগাযোগ করেন নি এ পর্যন্ত।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password