বাতিল হলো চীনের দুই সন্তান নীতি

দুটি সন্তানের বেশি না নেওয়ার যে নীতি ছিল সেটি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চীন। এখন থেকে সর্বোচ্চ তিনটি সন্তান নিতে পারবে দেশটির দম্পতিরা। আজ সোমবার (৩১ মে) এ খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি। 

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম সিনহুয়ার বরাত দিয়ে সেখানে বলা হয়েছে, সোমবার পলিটব্যুরোর এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে উঠে আসে যে, গত কয়েক দশকের মধ্যে চীনের জনসংখ্যা সবচেয়ে ধীর গতিতে বাড়ছে। এরপরই এমন সিদ্ধান্ত এলো। 

মে মাসের শুরুর দিকে চীনের আদমশুমারির প্রকাশিত সর্বশেষ তথ্যমতে, গত বছর চীনজুড়ে প্রায় ১২ মিলিয়ন শিশুর জন্ম হয়েছে। ২০১৬ সালে এই সংখ্যাটা ছিল ১৮ মিলিয়ন। ১৯৬০- এর দশকের পর এই প্রথম এত কম সংখ্যক শিশু জন্ম নিয়েছে।দুটি সন্তানের বেশি না নেওয়ার যে নীতি ছিল সেটি থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চীন। এখন থেকে সর্বোচ্চ তিনটি সন্তান নিতে পারবে দেশটির দম্পতিরা। আজ সোমবার (৩১ মে) এ খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি। 

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম সিনহুয়ার বরাত দিয়ে সেখানে বলা হয়েছে, সোমবার পলিটব্যুরোর এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে উঠে আসে যে, গত কয়েক দশকের মধ্যে চীনের জনসংখ্যা সবচেয়ে ধীর গতিতে বাড়ছে। এরপরই এমন সিদ্ধান্ত এলো। 

মে মাসের শুরুর দিকে চীনের আদমশুমারির প্রকাশিত সর্বশেষ তথ্যমতে, গত বছর চীনজুড়ে প্রায় ১২ মিলিয়ন শিশুর জন্ম হয়েছে। ২০১৬ সালে এই সংখ্যাটা ছিল ১৮ মিলিয়ন। ১৯৬০- এর দশকের পর এই প্রথম এত কম সংখ্যক শিশু জন্ম নিয়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password