ইউরিয়া সারের মূল্য বৃদ্ধি দেশের কৃষি খাতে অস্থিরতা সৃষ্টি করবে

ইউরিয়া সারের মূল্য বৃদ্ধি দেশের কৃষি খাতে অস্থিরতা সৃষ্টি করবে

ইউরিয়া সারের মূল্য বৃদ্ধি দেশের কৃষি খাতে অস্থিরতা সৃষ্টি করবে বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশ সংযুক্ত শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মোসাদেক হোসেন স্বপন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোকাদ্দেম হোসেন ও বাংলাদেশ ক্ষেত মজুর কৃষক সমিতির আহ্বায়ক শ্রমিক নেতা মোহাম্মদ বজলুর রহমান বাবলু।

সম্প্রতি ইউরিয়া সারের দাম কেজিতে ৬ টাকা বাড়ায় সরকার। ডিলার পর্যায়ে ইউরিয়া সারের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য প্রতি কেজি ১৪ থেকে বাড়িয়ে ২০ টাকা এবং কৃষক পর্যায়ে প্রতি কেজি ১৬ থেকে বাড়িয়ে ২২ টাকা পুননির্ধারণ করা হয়। নতুন এ দাম ১ আগস্ট থেকে কার্যকর হয়েছে।

আজ ৩ আগষ্ট বুধবার ইউরিয়া সারের মূল্যবৃদ্ধির ঘটনার সিদ্ধান্তে ক্ষোভ জানিয়ে এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃত্রয় বলেন, দেশের কৃষক যেখানে দীর্ঘদিন যাবৎ তাদের উৎপাদিত পণ্যের লোকসান গুনছে। তেল, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মুল্য বৃদ্ধিতে দিশেহারা কৃষক। সেখানে প্রতি কেজি ইউরিয়া সারের মূল্য ছয় টাকা বৃদ্ধি করা মরার উপর খাড়ার ঘা।

এ কারণে কৃষি পণ্য উৎপাদনে ব্যয় বাড়বে। কৃষক কৃষি পণ্য উৎপাদনে উৎসাহ হারাবে। তাঁরা বলেন, সংকটময় বর্তমান বিশ্বের অন্যতম রক্ষাকবচ হবে কৃষি উৎপাদন। যে দেশ কৃষি উৎপাদনে যত বেশি স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে তারা আগামীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ততটাই এগিয়ে থাকবে। তাই দেশের কৃষি উৎপাদন বাড়াতে প্রান্তিক কৃষকদের সহায়তার উপর জোর দিতে হবে। নেতৃবৃন্দ ইউরিয়া সারের উপর বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবি জানান।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password