আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০ জন

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০ জন

লালমনিরহাট সদর উপজেলায় আর্জেন্টিনার ব্যানার চুরি করাকে কেন্দ্র করে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সমর্থকের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় গ্রুপের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। রোববার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে লালমিরহাট সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. রমজান আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় চারজন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তাদেরকে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। এর আগে শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের সামুটারি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

লালমনির সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন আখলাত (১৯), কফি আনান (২১) ও মুজিবুল (২২)। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের পতাকা চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে কয়েকদিন ধরে দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির ঘটনা চলছিল। শনিবার সন্ধ্যায় আর্জেন্টিনার সমর্থক আব্দুল্লাহ আল মামুন ব্রাজিলের সমর্থক কফি আনানের ওপর পতাকা চুরির অভিযোগ তুলে। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরপর শনিবার মধ্যরাতে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকদের মধ্যে আবারও সংঘর্ষ বাধে।

এতে দুই পক্ষের ১০ জন আহত হয়। এ সময় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে সদর উপজেলার উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন খবর পেয়ে আহত উভয় দলের সমর্থকদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। আহত আখলাক (২০) এর বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক বলেন, 'আমার ছেলেকে যারা অন্যায়ভাবে পিটিয়ে আহত করেছে তাদের বিচার চাই। এ বিষয়ে আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব'।

সদর হাসপাতালে ভর্তি কফি আনান বলেন, 'আর্জেন্টিনার সমর্থকরা পতাকার চুরির মিথ্যা অভিযোগ এনে আমাকে ডেকে অন্যায়ভাবে পিটিয়েছে। চুরির বিষয়ে আমরা কিছুই জানি না'। লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মূলত পতাকা চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। ঘটনায় কেউ থানায় অভিযোগ করেননি।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password