‘মাথার খুলি খুলে রাখা’ সেই শিক্ষার্থী আকিবের মাথায় হাড় প্রতিস্থাপন

‘মাথার খুলি খুলে রাখা’ সেই শিক্ষার্থী আকিবের মাথায় হাড় প্রতিস্থাপন

পাঁচ মাস আগে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের দুপক্ষের সংঘর্ষের সময় প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত মাহাদি জে আকিবের মাথার খুলির হাড়ের অংশ প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। সোমবার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের নিউরো সার্জারি বিভাগের তত্ত্বাবধানে আকিবের মাথায় দ্বিতীয় এ অস্ত্রোপচার করা হয়। গত ৩০ অক্টোবর তার প্রথম অস্ত্রোপচার হয়েছিল।

আকিবের মস্তিস্কে অস্ত্রোপচারকারী চমেক হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. নোমান খালেদ চৌধুরী বলেন, 'সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা ১০ মিনিট পর্যন্ত অপারেশন করেছি। সফলভাবে মাথার খুলির হাড়টি প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। এখন তাকে পোস্ট অপারেটিভ নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।' উল্লেখ্য, গত বছরের ২৯ অক্টোবর রাতে এবং ৩০ অক্টোবর দিনে চমেক ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

৩০ অক্টোবর প্রতিপক্ষের আঘাতে মারাত্মক আহত হন আকিব। চিকিৎসকরা তখন জানিয়েছিলেন, আকিবের মাথার হাড় ভেঙে গেছে এবং মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এরপর অস্ত্রোপচার করে তার মাথার হাড়ের একটা অংশ খুলে পেটের চামড়ার নিচে রাখা হয়। মাথার ব্যান্ডেজে তখন লিখে রাখা হয়, ‘হাড় নেই, চাপ দেবেন না’।

ওই হাড় আরেকটি অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আগের জায়গায় প্রতিস্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। সেই অপারেশনটি করার জন্য তাকে পুনরায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কুমিল্লার স্কুল শিক্ষক গোলাম ফারুক মজুমদারের দুই সন্তানের মধ্যে মাহাদী জে আকিব (২১) ছোট। তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password