বাউফলে কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে আটক ১

বাউফলে কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে আটক ১

বাউফলের বাকপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে দেলোয়ার খান(১৪) নামের এক কিশোরকে আটক করা হয়েছে। গত বরিবার বিকাল সারে ৫টার দিকে উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ লক্ষ্মীপাশা গ্রামে এঘটনা ঘটে।

পরে রাত ১১টা দিকে ওই কিশোরকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন স্থানীয়রা। দেলোয়ার ভায়লা ফজলুল হক মোল্লা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র । তার বাবার নাম নুরুল হক খান। জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকালে সারে ৫টার দিকে একই ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নুরুল হক খানের নবম শ্রেণী পড়ুয়া ছেলে দেলোয়ার ওই বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে জোরপূর্বক বাইকে তুলে নিয়ে পাশের অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। সন্ধ্যার দিকে ওই কিশোরী বাড়ি ফিরে এলে তার মাকে ওই ইশারা ইঙ্গিতে তাকে ধর্ষণের কথা বলেন।

এরপর সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার ও কয়েকজ স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে সন্দেহভাজন ৪ জনকে ওই কিশোরীর সামনে হাজির করলে ওই কিশোরী দেলোয়াকে ইশারা করে দেখিয়ে দেন। ওই সময় স্থানীয়রা দোলোয়ারকে আটক করে বাউফল থানায় খবর দেন। পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাউফল থানার ওসি ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষক দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ ব্যাপারে বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন, ‘কিশোরীকে চিকিৎসার জন্য রাতেই পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অভিযোগ দাখিলের জন্য ধর্ষিত কিশোরীর বাবা থানায় অবস্থান করছেন। মামলা হলে অইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)