পরিবহন মালিকদের সঙ্গে বিআরটিএর রুদ্ধদ্বার বৈঠক চলছে

পরিবহন মালিকদের সঙ্গে বিআরটিএর রুদ্ধদ্বার বৈঠক চলছে

জ্বালানি তেলে প্রতিদিনের ২০ কোটি টাকার লোকসান পোষাতে সরকার প্রতি লিটারে ১৫ টাকা করে মূল্য বৃদ্ধি করেছে। এরই প্রেক্ষিতে ২০১৯ সালের প্রস্তাবিত বর্ধিত ভাড়ার প্রস্তাবের সঙ্গে ডিজেলের অতিরিক্ত ২৩ শতাংশর খরচ যোগ করে ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করতে যাচ্ছে বাস মালিক সমিতির সংগঠনের নেতারা।

বৈঠকের একটি সূত্র জানায়, দূরপাল্লার বাস জন্য প্রতি কিলোমিটারে ২ টাকা ৯ পয়সা ও ঢাকার জন্য ২ টাকা ৪৯ পয়সা ভাড়ার প্রস্তাব করা হবে। আজকেই বিষয়টির মীমাংসা হবে। বৈঠক এখনও চলছে। তবে মূল বৈঠক থেকে মালিক পক্ষ বের হয়ে আলাদা করে আলোচনা করছে। সেই আলোচনার পর এমন প্রস্তাব করা হতে পারে।

বৈঠকে অংশ নেওয়া পরিবহন মালিকদের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে পরিবহন খরচ বৃদ্ধি পেয়েছে। নতুন করে ভাড়া নির্ধারণ করা না হলে মালিকদের অনেক সমস্যায় পড়তে হবে। এদিকে, ধর্মঘটের কারণে সড়কে চলছে না কোনো বেসরকারি বাস। তবে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, রিকশা, লেগুনা চলাচল করছে। তা-ও প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে কিছু বিআরটিসির বাস চলাচল করেছে। বেসরকারি বাস না চলায় সড়কের আর যাত্রীদের দখল নেয় রিকশা, সিএনজি, ব্যক্তিগত গাড়ি ও মোটরসাইকেল।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password