নওগাঁর ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিপুল পরিমাণ প্রেগনেন্সি টেস্টকিট জব্দ

নওগাঁর ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিপুল পরিমাণ প্রেগনেন্সি টেস্টকিট জব্দ

নওগাঁর সদরে একটি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ প্রেগনেন্সি টেস্টকিট জব্দসহ কিট তৈরির যাবতীয় সরঞ্জাম জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার ও কেয়ারটেকারকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ছাড়াও চার কর্মচারীকে এক হাজার টাকা করে মোট ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আজ শনিবার (১২ মার্চ) বিকাল ৪টার দিকে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এর আগে একই দিন দুপুরে নওগাঁ শহরের ইঁদুরবটতলী হাজি মনসুর সড়কের রুবেল হোসেনের বাড়ির নিচতলায় ‘আরএন করপোরেশন’ নামে ওই প্রতিষ্ঠানটিতে এই অভিযান চালায় এনএসআইয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আরএন করপোরেশন নামে ওই প্রতিষ্ঠানটিতে অনিয়মের মাধ্যমে অসৎ উদ্দেশ্যে অনুমোদনহীন ওই প্রেগনেন্সি কিট প্রস্তুতসহ প্যাকেটজাত করে ঢাকাসহ সারাদেশে বাজারজাত করা হচ্ছিল।

গোপন সংবাদে আজ শনিবার জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) নওগাঁ কার্যালয়ের উপ-পরিচালকের নেতৃতে জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. তাহমিদুল ইসলাম ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিনিধি ডা. আশিস কুমার সরকারের উপস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। পরে ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক রুবেল হোসেন (৩২), নবীর হোসেন (৩২) পলাতক থাকায় ম্যানেজার গুলজার হোসেন (৫০) ও কেয়ারটেকার গোলাম মোস্তফাকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানের চারজন কর্মচারীকে এক হাজার টাকা করে মোট চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সঙ্গে জব্দ করা হয় প্রায় এক কোটি টাকা মূল্যের অনুমোদনহীন প্রেগনেন্সি টেস্ট কিট এবং কিট তৈরির সরঞ্জাম।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, অনুমোদনহীনভাবে প্রেগনেন্সি কিট প্রস্তুত ও প্যাকেটজাত করে ঢাকাসহ সারাদেশে বাজারজাত করার অপরাধে ওই প্রতিষ্ঠানটিকে সিলগালা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিষ্ঠানের মালিকের বিরুদ্ধ ওষুধ প্রশাসনের মাধ্যমে মামলা দায়ের করা হবে এবং সে অনুযায়ী পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password