ভোট গণনার দিনে কর্মীদের সর্তক থাকতে বলেছেন মমতা

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের অষ্টম ও শেষ দফার ভোটগ্রহণ হয়েছে বৃহস্পতিবার। এর পর রাজ্যবাসী অধীর আগ্রহে ছিল কী জানায় বুথ ফেরত সমীক্ষা।অধিকাংশ সমীক্ষা জানান দিয়েছে বাংলার মসনদ তৃতীয়বারের জন্য দখল করতে চলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এতে তৃণমূলকর্মীরা উজ্জীবিত হলেও রোববার (২ মে) ভোট গণনার আগে তা প্রকাশ্যে দেখাতে নারাজ মমতা।গণনার দিন কারচুপি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী।

তাই এজেন্টদের গণনার দিনে কী করণীয় তা বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি।কাউন্টিং এজেন্টেদের নেত্রী বলেছেন, গণনা নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে। ভালো করে নজরদারি চালাতে হবে।সব রটনা দূরে সরিয়ে ভোরবেলায় গণনা কেন্দ্রে পৌঁছে যেতে হবে। মাঝখানে গণনার টেবিল ছেড়ে কোনো জায়গায় যাওয়া যাবে না। যেসব আসনে তৃণমূলের আসন নিশ্চিত সেখানে বিজেপি সমস্যা করতে পারে। ফলে সতর্ক থাকতে হবে। অধৈর্য় হওয়া চলবে না। গণনার শেষ সময় পর্যন্ত বসে থাকতে হবে।পাশাপাশি নেত্রীর সতর্কবার্তা, কাউন্টিং সেন্টারে কোনোভাবেই অন্যের দেওয়া খাবার, পানি, পান, সিগারেট নেওয়া যাবে না। এমনকি কোনো প্রলোভনে পা দেওয়া যাবে না। কোনো অবস্থাতেও ইভিএম ছেড়ে ওঠা যাবে না।

অন্যদিকে ভারতের প্রথমসারির বেশকিছু সমীক্ষা সংস্থা বাংলায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিয়েছে। এমনকি কয়েকটা সংস্থা আবার বিজেপিকে এগিয়ে রেখেছে। একটি সংস্থা আবার জানিয়েছে, রাজ্যের তৃতীয় শক্তি বাম-কংগ্রেস-আব্বাস জোট অর্থাৎ সংযুক্ত মোর্চা বেশ কয়েটা আসন পাওয়ায় বিজেপি-তৃণমূল একক ক্ষমতায় সরকার গঠনের জন্য ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে পারবে না।এ নিয়ে শনিবার (১ মে) রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, কে কী বলরো জানি না। যে যার নিজের কাজ করেছে। তবে একটু বলতে পারি প্রত্যাশা মতো আগামী দিন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি শাসিত নতুন সরকার হতে চলেছে। আরেক বিজেপি নেতা বলেছেন, সংযুক্ত মোর্চাকে কেউ ভোট দেবে না। কারণ তারা সরকার গঠন করতে পারবে না, তা রাজ্যবাসী জানেন।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন