অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত আইপিএল

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারত। প্রতিদিন চার লাখ মানুষ আক্রান্ত ও সাড়ে তিন হাজারের উপর মানুষ মারা যাচ্ছে। তার মধ্যে চলছিল ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এ নিয়ে সমালোচনাও কম হচ্ছিলনা। তবে আইপিএলের সংশ্লীষ্ট সবাই সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে নিরাপদ এমনটা জানিয়ে আইপিএল চালিয়ে যাচ্ছিল বিসিসিআই। তবে গতকাল নিশ্চিদ্র সুরক্ষা বলয় ভেদ করে আইপিএলে ঢুকে পরে করোনা। কলকাতা নাইট রাইর্ডাসের দুই জন ও চেন্নাইয়ের তিনজন করোনায় আক্রান্ত হন। এই কারণে গতকালের ম্যাচও স্থগিত করে দেয়া হয়। আজ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন হায়দরাবাদের ভারতীয় উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহা ও দিল্লির লেগস্পিনার অমিত মিশ্র। দিল্লির অরুন জেটলি স্টেডিয়ামে আজ রাতেই মাঠে নামার কথা ছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের, প্রতিপক্ষ ছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। এরপরেই আইপিএল স্থগিত করা নিয়ে শুরু হয় আলোচনা। কিন্ত তাতেও টনক নড়ছিল না আইপিএল কর্তৃপক্ষের। তারা আইপিএল চালানোর সিন্ধান্তে ছিলেন অনড়।

তবে অবশেষে আজ করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করে দেয়া হল আইপিএল। আজ (মঙ্গলবার) ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিসিআই সহ-সভাপতি রাজিব শুক্লা। তাছাড়া আরেক সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে আইপিএল চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল নিশ্চিত করেছেন, বর্তমান কোডিভ পরিস্থিতিতে ‘অনির্দিষ্টকালের জন্য’ বন্ধ করা হয়েছে কুড়ি ওভারের প্রতিযোগিতাটি। যদিও রাজিব শুক্লা জানিয়েছেন, এক সপ্তাহ পরই চালু হতে পারে আইপিএল।

আজ দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ আইপিএলের ভাগ্য নির্ধারণে বৈঠকে বসেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এর শীর্ষ কর্তারা। প্রাথমিকভাবে তারা ভেবেছিলেন ছয় শহরের বদলে একটি শহরে খেলা চালিয়ে নেয়ার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই প্রস্তাব টেকেনি। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আইপিএলে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর কাছ থেকে তাদের মতামত জিজ্ঞেস করেছে আয়োজকরা। বেশ কয়েকটি দল পুরো আইপিএল বন্ধ করে দেয়ার পক্ষেই নিজেদের মত দিয়েছে। তাই আপাতত স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এবারের আইপিএলে এখন পর্যন্ত ২৯টি ম্যাচ মাঠে গড়িয়েছে। গ্রুপ পর্ব ও কোয়ালিফায়ার নিয়ে এখনও ৩১টি ম্যাচ বাকি রয়েছে।  

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন