নিজের ভোটই দিতে পারবেন না বিএনপির প্রার্থী সালাউদ্দিন

শনিবার (১৭ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচন। এই আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সালাউদ্দিন আহমেদ। প্রার্থী হলেও ভোট দিতে পারবেন না তিনি। কারণ এই আসনেরই ভোটার নন সালাউদ্দিন। ঢাকা-৪ সংসদীয় আসনের ভোটার তিনি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও ঢাকা-৪ আসন থেকে সালাহউদ্দিন আহমেদকে বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছিলো। ওই সময় তিনি ঢাকা-৫ আসনের ভোটার ছিলেন। কিন্তু মনোনয়ন পাওয়ার পর সালাহউদ্দিন আহমেদ ঢাকা-৪ আসনের ভোটার হওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনে আবেদন করেন। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে ঢাকা-৪ আসনের ভোটার করা হয়।

এবারও বিএনপি থেকে সালাহউদ্দিন আহমেদকে উপনির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেয়ার পরেই তিনি ঢাকা-৫ আসনে ভোটার হওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করেন। কিন্তু তাকে নির্বাচন কমিশন থেকে জানানো হয়, এই অল্প সময়ে ভোটার তালিকা পরিবর্তন করা সম্ভব নয়।

সালাহউদ্দিন আহমেদের ছেলে এবং বিএনপির প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট তানভির আহমেদ রবিন বিডিটাইপকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, উনি (সালাহউদ্দিন আহমেদ) ঢাকা-৫ আসনের ভোটার নন। কিন্তু ২০১৮ সালে উনি ঢাকা-৫ আসনের ভোটার ছিলেন। আর ওই সময় (একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন) ঢাকা-৪ আসনে মনোনয়ন পাওয়ার পর ভোটার তালিকা পরিবর্তন করে ‘ঢাকা-৪’ এর ভোটার হন। আর এবারো মনোনয়ন পাওয়ার পর আবেদন করা হয়েছিলো। কিন্তু নির্বাচন কমিশন থেকে জানানো হয়েছে যে, ‘এখন আর সম্ভব নয়’। আর আবেদনটি এখনো নির্বাচন কমিশনেই আছে।

শনিবার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনে সালাহউদ্দিন আহমেদ ভোট দিতে পারছেন না- এই প্রশ্নের জবাবে রবিন বলেন, জি, আগামীকাল উনি ভোট দিতে পারবেন না। আর আওয়ামী লীগের প্রার্থীও ভোট দিতে পারবেন না। কারণ উনিও এখানকার ভোটার নন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪৮, ৪৯, ৫০, ৬০, ৬১, ৬২, ৬৩, ৬৪, ৬৫, ৬৬, ৬৭, ৬৮, ৬৯ ও ৭০ নম্বর ওয়ার্ডের মতিঝিল (আংশিক), যাত্রাবাড়ী, ডেমরা ও কদমতলী (আংশিক) নিয়ে গঠিত ঢাকা-৫ আসন। এ আসনে ১৮৭টি ভোটকেন্দ্রে ভোটকক্ষ রয়েছে ১ হাজার ৯৫টি। এতে ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন; যাদের মধ্যে পুরুষ ২ লাখ ৪১ হাজার ৪৬৪ জন ও নারী ২ লাখ ২৯ হাজার ৬৬৫ জন। এ নির্বাচনী এলাকায় ২ জন জুডিশিয়াল ও ২৮ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী, শনিবার সকাল ৯টায় ভোট শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত।

হাবিবুর রহমান মোল্লা গত ৬ মে মারা যাওয়ায় শূন্য হয় ঢাকা-৫ সংসদীয় আসন। এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ জন প্রার্থী। তারা হলেন আওয়ামী লীগের কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহ্ উদ্দিন আহমেদ, জাতীয় পার্টির মীর আবদুর সবুর, গণফ্রন্টের এইচএম ইব্রাহিম ভূঁইয়া, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আনছার রহমান শিকদার ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আরিফুর রহমান।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন