বন্ধ হয়ে যাচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড নির্মাতার ফোন কোম্পানি

অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যারের সহপ্রতিষ্ঠাতা অ্যান্ডি রুবিনের মোবাইল ফোন কোম্পানি ‘এসেনশিয়াল’ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কোম্পানিটির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণা এসেছে। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২০১৫ সালে এসেনশিয়াল প্রতিষ্ঠা করার পর কয়েকটি মডেলের নতুন স্মার্টফোন, স্মার্ট হোম স্পিকার ও নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেমের ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি।

এখন পর্যন্ত ‘সেনশিয়াল ওয়ান’ নামের একটি স্মার্টফোন ও কিছু যন্ত্রাংশ বাজারে ছেড়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এসেনশিয়ালের পক্ষ থেকে অত্যন্ত পাতলা ‘জেম’ নামের একটি স্মার্টফোন তৈরির কাজ হচ্ছিল। কিন্তু সে ফোনটি আর আলোর মুখ দেখার সম্ভাবনা কম বলে এক বিবৃতিতে বলেছে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রতিষ্ঠানটির বিবৃতিতে বলা হয়, তাদের লক্ষ্য ছিল মোবাইল কম্পিউটিংয়ে নতুন উদ্ভাবন আনা, যা মানুষের জীবনযাপনের সঙ্গে যুক্ত থাকবে। তবে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা থাকলেও সামনে কোনো পরিষ্কার পথ নেই। এ কারণে এসেনশিয়ালকে বন্ধ করে দেওয়ার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে।

এসেনশিয়াল বন্ধ হয়ে গেলে এ কোম্পানির ফোনে আর কোনো নিরাপত্তা হালনাগাদ পাওয়া যাবে না। তবে তাদের সফটওয়্যার গিটহাবে রাখবে, তারা যাতে ডেভেলপাররা তা কাজে লাগাতে পারেন। এসেনশিয়ালের ক্রস প্ল্যাটফর্ম মেইলিং সফটওয়্যার নিউটন মেইল আগামী এপ্রিল থেকে বন্ধ হয়ে যাবে।

২০০৫ সালে অ্যান্ড্রয়েড উদ্যোগকে গুগলের কাছে বিক্রি করে দেন রুবিন। এরপর আট বছর গুগলের হয়ে তাঁর ক্ষুদ্র উদ্যোগটিকে মুঠোফোনের দুনিয়ায় বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সফটওয়্যারে রূপ দিয়েছেন। ২০১৩ সালে গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ও রোবটিকস ইউনিট থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। ২০১৪ সালে গুগল ছেড়ে দেন।

এরপর রুবিন বিনিয়োগ করেন ‘প্লেগ্রাউন্ড গ্লোবাল’ নামের একটি উদ্যোগে, যা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবটিকস ও অগমেনটেড রিয়্যালিটি প্রকল্প নিয়ে কাজ করে।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন