পতিতালয়ে যেতে স্ত্রীর অস্বীকৃতি, মুখ বেঁধে রড দিয়ে মারধর!

ভারতে মুম্বাইর পতিতালয়ে যেতে অস্বীকৃতির কারণে গভীর রাতে হাত-পা ও মুখ বেঁধে লোহার রড দিয়ে স্ত্রীকে পিটিয়েছে স্বামী (৩৭)। অভিযোগ করে গৃহবধূ বলেন, ভারতে মুম্বাইর পতিতালয়ে যেতে অস্বীকৃতির কারণেই স্বামীর এই নির্যাতন। মারধরের পর ঘরে আটকে রাখা হয় গৃহবধূকে। প্রতিবেশিদের মাধ্যমে খবর পেয়ে বাবার বাড়ির লোকজন গত সোমবার সন্ধ্যায় উদ্ধার করে গৃহবধূকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

তিনি বলেন, স্বামীর বাড়ি নড়াইল সীমান্তবর্তী খুলনার ফুলতলা উপজেলার যুগ্নীপাশা গ্রামে। গত রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) এই বাড়িতে রাত ৩টার দিকে স্ত্রীর হাত-পা ও মুখ বেঁধে বাথরুমের মধ্যে লোহার রড দিয়ে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতন চালায় নিষ্ঠুর স্বামী। এ ঘটনায় স্ত্রীর মাথা ও কপালে একাধিক সেলাই দেয়া হয়েছে।

জানা যায়, প্রায় ১০ বছর আগে নড়াইল সদরের রুখালী গ্রামের দরিদ্র ঘরের মেয়েকে ভালোবেসে বিয়ে করেন পাশের ফুলতলা উপজেলার যুগ্নীপাশা গ্রামের এক তরকারি বিক্রেতা। তবে তাদের দাম্পত্য জীবন সুখের হয়নি। স্বামী তার স্ত্রীকে প্রায়ই মারধর করে ভারতে যাওয়ার জন্য চাপ দেয়। একপর্যায়ে ওই গৃহবধূকে তার স্বামী ২০১৪ সালে মুম্বাই নিয়ে যায়। প্রায় তিন বছর আগে সেখান থেকে ওই গৃহবধূ স্বামীসহ বাড়িতে চলে আসেন। এরপর আবারো গৃহবধূর ওপর শুরু হয় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। এ নিয়ে অন্তত পাঁচবার এলাকায় শালিসও হয়েছে। এরই মধ্যে ওই স্বামীর বিরুদ্ধে এলো রড দিয়ে পেটানোর অভিযোগ।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন