ধান ক্ষেতে মিলল ‘চিতাবাঘের’ তিন শাবক

কুমিল্লার লাকসামে ধান ক্ষেত থেকে তিনটি ‘চিতাবাঘের’ শাবক উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (১১ মে) দুপুরে উপজেলার কান্দিরপাড় ইউনিয়নের চনগাঁও নোয়াপাড়া গ্রামের ফসলি জমি থেকে মাসুম খান নামে এক ব্যক্তি স্থানীয়দের সহযোগীতায় শাবকগুলো আটক করেন। পরে রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শাবক তিনটি উদ্ধার করে। তবে উদ্ধারকৃত শাবকগুলো বাঘের না বনবিড়ালের তা নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার চানগাঁও নোয়াপাড়ার হাজী ছেরাজুল ইসলামের ছেলে মাসুম খান নিজেদের ফসলি জমিতে ধান কাটতে গিয়ে ‘চিতাবাঘের’ তিনটি শাবক দেখতে পান। এসময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় তিনি জীবিত অবস্থায় শাবকগুলো আটক করেন। সূত্র বলছে, চিতার তিনটি শাবক থেকে দুইটি নিজের কাছে রেখে অপর একটি শাবক পার্শ্ববর্তী এলাকার এক ব্যক্তিকে দিয়ে দেন মাসুম। দুইটি শাবক নিজের অধীনে রেখে এগুলো বিক্রির জন্য ফেসবুকেও একটি স্ট্যাটাস দেন তিনি। এরপর থেকে এলাকার লোকজন শাবকগুলো দেখতে আসলে তিনি দেখাচ্ছেন না। স্থানীয়দের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে তার বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারেরও অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে মাসুম খানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে চিতাবাঘের তিনটি শাবক আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তার দাবি, পাশ্বর্তী এলাকার আরিফ নামে একজনকে একটি শাবক দিয়েছেন এবং তার নিজের আয়ত্বে থাকা দুটি শাবক তিনি ছেড়ে দিয়েছেন।অবশ্য রাতেই পুলিশ পৃথক স্থান থেকে শাবক তিনটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।জানতে চাইলে লাকসাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন জানান, শাবকগুলো বাঘের না বনবিড়ালের এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আমাদের থানা পুলিশের ফোর্স রাত ৮টার দিকে অভিযান চালিয়ে শাবক তিনটি উদ্ধার করেছে। এখন আমরা বনবিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করে এগুলো তাদের কাছে হস্তান্তর করব।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন