ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯২০

ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯২০

আফগানিস্তানে আঘাত হানা শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯২০ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া ভূমিকম্পে প্রায় ছয় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন বলে তালেবান কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় পাকতিকা প্রদেশের খোস্ত শহর থেকে ৪৪ কিলোমিটার দূরের একটি স্থানে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ১টা ৩০ মিনিটের দিকে ভূমিকম্পটির উৎপত্তি হয়।

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করা বিভিন্ন পোস্টে ধ্বংসস্তুপ, ভেঙে পড়া বাড়িঘর এবং আহত মানুষদেরকে স্ট্রেচারে করে নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখা গেছে। আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বুধবার এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, আহত ব্যক্তিদের নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য চিকিৎসকদের একটি দল এবং সাতটি হেলিকপ্টার ওই এলাকায় পাঠানো হয়েছে।

ভূমিকম্পটি আফগানিস্তান, পাকিস্তান এবং ভারতের ৫০০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে অনুভূত হয় বলে ইউরোপিয়ান মেডিটেরিয়ান সিসমোলজিকাল সেন্টারের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে রয়টার্সের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল এবং পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদেও ভূমিকম্প অনভূত হয়েছে। তালেবান সরকারের একজন মুখপাত্র বিলাল কারিমী বুধবার একটি টুইটারবার্তায় জানান, দূর্ভাগ্যজনকভাবে, গত রাতে এক তীব্র ভূমিকম্পে পাকতিকা প্রদেশের চারটি জেলায় কয়েকশ’ মানুষ হতাহত হয়েছে এবং অনেক বাড়িঘর ধ্বংস হয়ে গেছে।

আরও ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আমি সব সাহায্য সংস্থাকে দ্রুত সেখানে তাদের দল পাঠানোর জন্য অনুরোধ করছি। মার্কিন ভূতাত্তিক জরিপ সংস্থা ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে জানায়, ভূমিকম্পটি ছিল ৫ দশমিক ৯ মাত্রার। ভূমিকম্পটি যখন আঘাত হানে, তখন অনেক মানুষ ঘুমিয়ে ছিলেন। গত ১০ বছরে, দেশটিতে ভূমিকম্পে সাত হাজার জনেরও বেশি লোক নিহত হয়েছে বলে জাতিসংঘের মানবিক বিষয়ক সমন্বয়ের কার্যালয়ের রিপোর্টে জানা গেছে। ভূমিকম্পে দেশটিতে বছরে গড়ে ৫৬০ জন মারা যায়।

মন্তব্যসমূহ (০)