চট্টগ্রামের রাউজানে পাওনা টাকা চাওয়ায় গৃহবধূকে ডেকে নিয়ে হত্যা

পাওনা টাকা চাওয়ায় চট্টগ্রামের রাউজানের এক গৃহবধূকে বাড়ি থেকে ডেকে রাঙামাটির পাহাড়ে নিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার রাতে রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার মনাইরটেক এলাকার পাহাড় থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়।

নিহত গৃহবধূর নাম শাহানা আকতার। তিনি রাউজান পৌর সদরের ছত্রপাড়া এলাকার হাছি মিয়া সিকদারের মেয়ে ও নাতোয়ান বাগিছা এলাকার মো. সাঈদুল আলমের স্ত্রী।

জানা গেছে, পাহাড়ে শাহানা আকতারকে মুমূর্ষু অবস্থায় দেখতে পান দুই উপজাতি তরুণ। ওই সময় তারা পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়। 

কাউখালী থানার পরিদর্শক মহিবুল ইসলাম বলেন, শ্বশুরবাড়ির প্রতিবেশী সুজনের স্ত্রীর সঙ্গে বোন ডাকাডাকি হয় শাহানার। সেই সূত্রে শাহানা থেকে ৩০ হাজার টাকা ধার নেন সুজন। আর সেই ধারই কাল হয় শাহানার। টাকা চাইলে তাদের মধ্যে শুরু হয় বিরোধ। সেই বিরোধের জেরে শাহানাকে পাহাড়ে নিয়ে প্রচণ্ড মারধর করেন সুজন। পাহাড় থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধারের সময় শাহানা নিজেই এসব তথ্য জানান। তার গলায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। কিল-ঘুষি, লাথি ও লাঠি দিয়ে তাকে আঘাত করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী সাঈদুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। সুজন বড়ুয়াকেও নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

এদিকে, রাউজান থানার ওসি আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন