Gtv Live Bangladesh - জিটিভি-গাজী টিভি ONLINE

Watch gtv live streaming without any buffering. Here you can get all live cricket football and others match in gtv live. GTV Live are sports channel in Bangladesh. GTV live broadcast bangladeshi cricket match bpl live and others live match. Here you can enjoy all type of live match dont forget to share with your friends

Gtv Live Bangladesh – Watch Gazt tv live bangladesh. Gazi tv – gtv live are sports channel in bangladesh here have all live cricekt match

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দিয়ে বাংলাদেশের ভারত মিশন শুরু হচ্ছে আজ। পূর্বের তিক্ত অভিজ্ঞতা ভুলে সাম্প্রতিক পারফর্মেন্সে ভর করে ভারতকে রুখে দিতে চায় টাইগাররা।

আজ রোববার (৩ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৭টায় দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে শুরু হবে ম্যাচটি।

এ সফরে দুই মহারথি সাকিব-তামিমকে ছাড়াই শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামছে বাংলাদেশ দল। যে কারণে স্বভাবতই কঠিন পরীক্ষার সামনে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন টাইগাররা।

সিরিজটির ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। এ সিরিজে হেরে গেলে শ্রীলংকার মতো সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ম্যাচ হারের লজ্জায় পড়বে টাইগাররা।

গত শুক্রবার (১ নভেম্বর) অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে যায় সফরকারী শ্রীলংকা। তিন ম্যাচ সিরিজে অজিদের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার মধ্য দিয়ে সবচেয়ে বেশি ৬১ ম্যাচ হেরে বাংলাদেশকে (৫৮) লজ্জার রেকর্ড থেকে মুক্তি দেয় শ্রীলংকা।

এদিকে, ওয়ানডেতে রোহিত শর্মাদের বিপক্ষে স্মৃতিটা সুখকর হলেও, টি-টোয়েন্টিতে মোটেও ভাল নয়। এর আগের দু’দলের ৮ দেখায় সবগুলো ম্যাচেই হেরে যায় বাংলাদেশ। মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা সেই পরাজয়ের বৃত্ত ভাঙবেন বলেই প্রত্যাশা টাইগার ভক্তদের।

ভারতের বিপক্ষে এই টি-টোয়েন্টি সিরিজকে সামনে রেখে তিন বছর পর দলে ফেরানো হয়েছে আল-আমিন হোসেন ও আরাফাত সানিকে। ঠিক তিন বছর আগে এই ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার পর থেকেই জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন এই দুই টাইগার বোলার।

এবার সেই ভারতের বিপক্ষেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন সানি ও আল-আমিনরা। শুধু তাই নয়, রোববার ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হতে পারে তরুণ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাঈমের।

দিল্লীতে অনুষ্ঠিতব্য প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তামিমের অনুপস্থিতে ওপেনিংয়ে যথারীতি থাকছেন লিটন দাস ও সৌম্য সরকার। ওয়ান ডাউনে মোহাম্মদ মিঠুন অথবা নামতে পারেন অভিষিক্ত মোহাম্মদ নাঈম। এরপরের চারটি পজিশনে থাকবেন যথাক্রমে মি. ডিপেন্ডেবল মুশফিক, অধিনায়ক রিয়াদ, মোসাদ্দেক ও আফিফ হোসেন।
বোলিংয়ে মোস্তাফিজের সঙ্গী থাকছেন আল-আমিন। তৃতীয় পেসার খেলালে বল হাতে দেখা যেতে পারে আবু হায়দার রনিকে। অন্যথায় আরাফাত সানির সঙ্গে দ্বিতীয় স্পিনার হিসেবে দেখা যেতে পারে আরেক বাঁহাতি স্পিনার তাইজুলকে। তবে রনিকে খেলানোর সম্ভাবনাই বেশি।

কেননা, সানির সঙ্গে স্পিনে হাত ঘোরাতে পারেন মোসাদ্দেক, আফিফ ও অধিনায়ক নিজেও। সেক্ষেত্রে স্পিনে পারদর্শী ভারতের বিপক্ষে আরেকজন বাড়তি স্পিনার নামানোর ঝুঁকি নিবে না বাংলাদেশ।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন