চার বছর অপেক্ষার পর ‘প্রিয়তমা’র দেখা পেলেন সৌম্য!

চার বছর অপেক্ষার পর ‘প্রিয়তমা’র দেখা পেলেন সৌম্য! বিয়ে নিয়ে এখনো সেভাবে কিছু বলেননি। আপাতত সব ধ্যান জ্ঞান প্রেম ক্রিকেটের সাথেই। চেনা প্রাঙ্গণে ব্যাটই তার আসল অ’স্ত্র। ইদানীং অবশ্য দলের প্রয়োজনে বলও হাতে নিতে হয়। সে সব নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিতও সৌম্য সরকার।

মাঝে মধ্যে গল্পের ছলে কিংবা রসিকতা করেই বলে ফেলেন ক্রিকেট ছাড়া কিছুই যেন তার মাথায় আসে না এখন। বড় কোনো ইনিংস কিংবা রেকর্ড তার কাছে অনেক প্রিয়, অনেকটা আরাধ্যর।

শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) বোধ হয় তেমন কিছুর স্বাদই নিলেন সৌম্য। দীর্ঘ চার বছর অপেক্ষার পর ফিফটির দেখা পেলেন এই টাইগার তারকা। এমন ঝলমলে ফিফটি সৌম্যর কাছে প্রিয়তমা’র চেয়ে কম কিসে! তবে দলকে জেতাতে পারলে ষোলআনাই হতো সৌম্য’র।

এ দিন মিরপুর শেরে বাংলায় কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের হয়ে রাজশাহী রয়্যালসের বিপক্ষে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন সৌম্য। দলের বাজে অবস্থার মধ্যে দাঁড়িয়ে ৪৮ বলে ৮৮ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। যদিও বিপিএলে ৫৮ ম্যাচ খেলা সৌম্যর এটা সেকেন্ড অর্ধশতক।

এর আগে ২০১৫ বিপিএলে চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে চট্টগ্রামে রংপুর রাইডার্সের হয়ে ৫৮ রানের ইনিংস খেলেছিলেন সৌম্য। বিপিএলে সেটি ছিল তার প্রথম ফিফটি। পাশাপাশি শনিবারের আগে চার-ছক্কার ক্রিকেটে তার ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ স্কোরও।

টি২০’তে খুব একটা আলো ছড়াতে পারেননি সৌম্য। এই ম্যাচের আগে ১১৭ ইনিংসে কখনোই ছুঁতে পারেননি ৬০ রানের ঘরটা। ফিফটি সবমিলিয়ে মাত্র ৫টি।

চলমান বিপিএলে কুমিল্লার হয়ে প্রথম তিন ম্যাচে টেনেটুনে ২৫ পেরিয়েছেন। তার পুরো ক্যারিয়ারের চিত্রও অনেকটা এ রকম। বেশ কয়েকটা ম্যাচে আশা দেখিয়ে নিভে গেছেন হুট করেই। এখন দেখার অপেক্ষা, এই ফিফটির পর আরেকটা ফিফটি কবে আসে?

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন