খেলাধুলা

পুরস্কার হাতে নিয়ে মঞ্চে নাচলেন সালাহ

কয়েকদিন আগেই টানা দ্বিতীয়বারের মতো আফ্রিকার বর্ষসেরা ফুটবলারের শিরোপা উঠছে মোহম্মদ সালাহ’র হাতে। সেনেগালিজ ফরোয়ার্ড সাদিও মানে ও গ্যাবনিজ স্ট্রাইকার পিয়ের-এমেরিক অবামেয়াংকে পেছনে ফেলে পুরস্কারটি জিতে নিয়েছেন মিশরের রাজা।গেল সপ্তাহের মঙ্গলবার কনফেডারেশন অব আফ্রিকান ফুটবল (সিএএফ) ডাকারে এক অনুষ্ঠানে সালাহর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেয়া হয়েছিল। মঞ্চেই স্থানীয় ব্যান্ডের সঙ্গে নেচে ওঠেন লিভারপুলের এই তারকা ফরোয়ার্ড। প্রথমে নাচতে না চাইলেও পরে ব্যান্ড শিল্পীর জোরাজুরিতে স্টেপ মেলান সালাহ। পুরস্কার হাতে নিয়ে মঞ্চ মাতিয়েছেন মিশর জাতীয় দলের অধিনায়ক। এসময় সঙ্গে ছিলেন লিভারপুলের সতীর্থ ও সেনেগাল তারকা সাদিও মানে। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলতে নামার আগেই সালাহ হয়ে গিয়েছিলেন সেই মৌসুমের প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা। ৩২টি গোল করেছিলেন ও ১২টি গোল করিয়েছিলেন। বিশ্বকাপে সালাহর ওপর অনেকেরই প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু টুর্নামেন্টে নামার আগেই চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে মারাত্মক চোট পান তিনি। রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক সার্জিও রামোসের ট্যাকেলে অশ্রুসিক্ত নয়ন মাঠ ছেড়েছিলে তিনি। কাঁধের এই চোটের পর থেকেই সালাহর জাতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপে খেলা নিয়েও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছিল। প্রথম ম্যাচে না নামলেও পরের দুই ম্যাচে মাঠ মাতাতে দেখা যায় মিশরীয় মেসি খ্যাত এই তারকাকে।দীর্ঘ ২৮ বছর পর মিশর রাশিয়ায় ফের বিশ্বকাপ খেলতে নামে। দলটি সব শেষ বিশ্বকাপ খেলেছিল ১৯৯০ সালে। রাশিয়ায় দুই ম্যাচে দু’গোল করেছিলেন সালাহ। গ্রুপ পর্যায় থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল আফ্রিকার দেশটিকে।

এ বিভাগের আরো খবর

Close