টেস্ট ক্রিকেটে ৭ লজ্জার রেকর্ডের ৩টাই বাংলাদেশের দখলে!

টেস্ট ক্রিকেটে ৭ লজ্জার রেকর্ডের ৩টাই বাংলাদেশের দখলে!

টেস্ট মানে ধৈর্য্যের খেলা। টেস্ট মানে একজন ক্রিকেটারের নিজেকে তোলে ধরার খেলা। আর সেখেনে কোন টেস্টে একে একে ৬জন ব্যাটসম্যান শূন্য মারলে হতাশ না হয়ে পারেনা কোন জাতি। টেস্ট ক্রিকেটে কোন দলের ব্যাটারদের মধ্যে ছয় জন ডাক(০) মারার ঘটনা খুব কম সময়ই ঘটেছে। আইসিসির  রিপোর্ট অনুসারে এখন পর্যন্ত এক ইনিংসে কোন দলের খেলোয়াড়দের ৬ জন ব্যাটসম্যান শূন্য রানে আউট হওয়ার ঘটণা ঘটেছে মাত্র ৭ বার। এই লজ্জার রেকর্ডের ৩ বাড়ই রয়েছে বাংলাদেশের নাম। 

অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম দিনে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং ব্যর্থতায় ভোগছে বাংলাদেশ। মাত্র ১০৩ রানে গুটিয়ে গেছে টাইগাররা। প্রথম দিনের খেলা শেষে ২ উইকেট হারিয়ে স্কোর বোর্ডে ৯৫ রান তুলেছে উইন্ডিজ। তারা এখনো ৮ রানে পিছিয়ে থাকলেও হাতে রয়েছে ৮ উইকেট।১ ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ৭ ব্যাটারকেই এক অঙ্কের ঘরে মাঠ ছাড়তে হয়েছে। এই সাতজনের মধ্যে ছয়জনই আবার ডাক (০) মেরেছেন।

উন্ডিজদের অন্যতম অভিজ্ঞ বোলার কেমার রোচ ও তরুণ পেসার জেডেন সিলসের গতির মুখে পড়ে কুপোকাত বাংলাদেশ দল। যেখানে শুধু রান পেয়েছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। শূন্যের জলছায় সাকিবের ছয় বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় ৬৭ বলে ৫১ রানের ইনিংসটি নিয়ে যা কথা বলা যায়।

ধ্বংসস্তূপে দাঁড়িয়ে অধিনায়ক সাকিবের ৫১ রানের ইনিংসের সুবাদে দলগত সেঞ্চুরি হাঁকাতে পারে বাংলাদেশ। আর এরই সঙ্গে ইতিহাসের প্রথম দল হিসেবে তৃতীয়বারের মতো এক লজ্জার বিশ্বরেকর্ডে নাম লেখাল বাংলাদেশ।১ তা হলো— টেস্টের এক ইনিংসেই বাংলাদেশের ৬ ব্যাটার শূন্য রানে ফিরেছেন। আর কত লজ্জার রেকর্ড করলে তা আমলে নিবে বিসিবি।

স্কোরকার্ডঃ

  • তামিম ইকবাল ৪৩ বল খলে করেছেন ২৯ রান
  • মাহমুদুল হাসান জয় ১ বলে ০ রান
  • শান্ত ৫ বল খেলে ০ রান
  • মমিনুল ৬বল খেলে ০ রান
  • লিটন দাশ ৩৩ বল খেলে করেছেন ১২ রান
  • ক্যাপটেন সাকিব ৬৭ বল খেলে করেছেন ৫১ রান
  • নুরুল হাসান ২ বল খেলে ০ রান
  • মেহেদী হাসান ২২ বল খেলে ২ রান 
  • রান মুস্তাফিজুর ৪ বল খেলে ০
  • এবাদত হসেন ১১ বল খেলে করেছেন ৩ রান নট আউট
  • খালেদ আহমেদ ৩ বল খেলে ০

একটা অভিজ্ঞ দলের সাথে এত গুলো নতুন খেলোয়াড় দিয়ে টেস্ট খেলানোর মানেটা ক্রিকেট প্রেমীদে জানা নাই। এটাও জানা নাই ক্রিকেট নিয়ে কোন দিকে এগুচ্ছে বিসিবি?

মন্তব্যসমূহ (০)