নওগাঁর রাণীনগরে দুই মেম্বার প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৮

নওগাঁর রাণীনগরে দুই মেম্বার প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৮

নওগাঁ জেলার রাণীনগর উপজেলার কামতা গ্রামে দুই মেম্বার প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আজাদুল ইসলাম নামে এক মেম্বার প্রার্থীসহ উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়েছে। আহতদের নওগাঁ ও আদমদীঘি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (০১ নভেম্বর) রাতে উপজেলার পারইল ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের কামতা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। আহত মেম্বার প্রার্থী আজাদুল ইসলাম জানান, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পারইল ইউনিয়নে ৯ নং ওয়ার্ডে মেম্বার (সাধারণ সদস্য) পদে ফুটবল প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সোমবার বিকেলে আমরা কর্মী-সমর্থক নিয়ে পুরো ওয়ার্ডে একটি মিছিল বের করি। তিনি দাবি করে বলেন, মিছিল শেষে রাত অনুমান সাড়ে ৯টায় কামতা গ্রামে মসজিদের সামনে পৌছলে প্রতিদ্বন্দ্বি মোরগ প্রতিকের মেম্বার প্রার্থী মিজানুর রহমান ও তার সমর্থকরা হামলা চালায়। এতে প্রার্থী আজাদুল এবং তার সমর্থক কামতা গ্রামের জসিম উদ্দীনের ছেলে ইয়াছিন আলী (৫২), মিজানুর রহমানের ছেলে ইয়াদুল (২৩), রফিকুলের ছেলে সাফি (২৪) ও আহসান আলীর ছেলে জামিল হোসেন (৩৫) আহত হয়।

আহতদের রাতেই নওগাঁ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযোগ অস্বীকার করে প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী মিজানুর রহমান জানান, আমার কর্মী সমর্থকরাও মিছিল শেষ করলে আজাদুল ও তার লোকজন আমাদের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করেছে। এতে কামতা গ্রামের আবেদ আলীর ছেলে আমার কর্মী-সমর্থক ইয়াছিন (৫৫), খলিলুরের ছেলে মোহাম্মদ আলী (৫২) ও আক্কাছ আলীর ছেলে সিদ্দিকুর রহমান (৬০) আহত হয়েছে। আহতদের রাতেই আদমদীঘি হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে এসেছে।

রাণীনগর থানার ওসি শাহিন আকন্দ বলেন, এ ঘটনায় এক পক্ষের নিকট থেকে একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password