নদ আর নদীর পার্থক্য

নদ আর নদীর পার্থক্য

নদ ও নদীর পার্থক্য নিয়ে জল্পনা-কল্পনার অবসান নেই। বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন রকম ব্যাখ্যা দিয়ে মানুষকে বিব্রত করে তুলছে রীতিমতো। অনেকের মতে নদ হলো পুরুষবাচক আর নদী হলো স্ত্রীবাচক শব্দ। আবার কেউ কেউ শাখা-প্রশাখাকে নিয়েও এদেরকে আলাদা করার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু এসব ধারণা মোটেই সমর্থনযোগ্য নয়। কারণ হিসাবে কয়েকটি যুক্তি উপস্থাপন করা যায়। 

১ নদ আর নদী দুটোর জন্যে ইংরেজি পরিভাষা একই তথা River | উদাহরণস্বরুপ:

কয়েকটির নদের নাম: Nile River= নীলনদ, Indus River= সিন্ধুনদ, Brahmaputra River= ব্রহ্মপুত্র নদ ইত্যাদি।

আবার কয়েকটি নদীর নাম হলো:  Amazon River= আমাজন নদী, Padma River= পদ্মা নদী  Murray River= মারি নদী ইত্যাদি। 

এখানে বোঝা যায় নদ ও নদী আসলে আমাদের বাংলা ভাষাভাষি লোকেরাই সৃষ্টি করেছে। কিন্তু এদের আলাদা অস্তিত্ব ইংরেজি ভাষায় পাওয়া যায় না।

* নবম-দশম শ্রেণির বোর্ড ব্যাকরণের সমাস অধ্যায়ের দিগু অংশে দেয়া আছে পঞ্চনদীর সমাহার=পঞ্চনদ (নদী নয়)। তাহলে দেখুন ৫টি মহিলা নদীর সমন্বয়ে কীভাবে ৫টি পুরুষ নদ তথা পঞ্চনদ হয়! 

প্রকৃত অর্থে নদ-নদী মূলত নারী-পুরুষ কিছুই না। আলাদা কোনো কিছুও না। এগুলো বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সাহিত্যিক ও লেখক  পাঠোপযোগিতা কিংবা ছন্দের খাতিরে লিখে গিয়েছেন। তাছাড়া নামগুলো যুগ যুগ ধরে মানুষের বাকপ্রবাহ থেকেই নদ আর নদীতে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে। উল্লেখ্য বাংলাদেশে ৪ টি নদ আছে। যথা: ব্রহ্মপুত্র নদ, তুরাগ নদ, কপোতাক্ষ নদ এবং আঁড়িয়াল খাঁ নদ। আর নদীর সংখ্যা নিয়ে বেশ বিতর্ক রয়েছে। তবে বাংলাপিডিয়ার তথ্য মতে বাংলাদেশে ৭০০ টি নদী আছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password