বগুড়ায় গরু চুরি করে ট্রাকে নিয়ে পালানোর সময় তিন সক্রিয় সদস্য আটক

বগুড়ায় গরু চুরি করে ট্রাকে নিয়ে পালানোর সময় তিন সক্রিয় সদস্য আটক

বগুড়ার শেরপুরে গরু চুরি করে ট্রাকে নিয়ে পালানোর সময় আন্তঃজেলা গরু চোর চক্রের তিন সক্রিয় সদস্যকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। এসময় চুরির কাজে ব্যবহৃত ট্রাকটিও আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে স্থানীয় জনতা।

মঙ্গলবার সকাল আটটার দিকে উপজেলার সীমাবাড়ী ইউনিয়নের কালিয়াকৈর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আটক ব্যক্তিরা হলেন- সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে সুখ চাঁন (৪০), শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে জহুরুল ইসলাম (৩৫) ও পাশের সুঘাট ইউনিয়নের ফুলজোড় গ্রামের সিরাজের ছেলে হবিবর রহমান (৩৯)।

জানা যায়, বগুড়া জেলার ধুনট উপজেলার হিজুলি গ্রামে সোমবার (২৭ডিসেম্বর) রাতে কৃষক শাহ আলমের বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে। সংঘবদ্ধ চোরদল তার গোয়াল ঘরের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। এরপর একটি গাভী ও একটি বকনা গরু চুরি করে মিনি ট্রাকে তুলে নিয়ে যাচ্ছিল তারা। কিন্তু গরু চুরির বিষয়টি টের পেয়ে চিৎকার শুরু করেন কৃষক শাহ আলম। এসময় তার চিৎকারে হিজুলি গ্রামবাসীসহ আশপাশের এলাকার লোকজন গাড়িটিকে ধাওয়া করেন। অবস্থা বেগতিক দেখে স্থানীয় একটি সড়কে চোরাই গরু রেখে ট্রাক নিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন সংঘবদ্ধ চোরদল। একপর্যায়ে এলাকাবাসীর ধাওয়ায় দ্রুতগতিতে যাওয়ার সময় কালিয়াকৈর গ্রামে তাদের বহনকারী ট্রাকটি উল্টে যায়। এসময় চোরদলের দুই সদস্য পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও তিনজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

এর আগে আটক হওয়া চুরির কাজে ব্যবহৃত ট্রাকটিতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ স্থানীয় জনতা। জানতে চাইলে কৃষক শাহ আলম বলেন, গরু চুরির বিষয়টি টের পেয়ে চিৎকার শুরু করেন। পরে গ্রামবাসী ও আশপাশের এলাকাবাসী চোরদলকে ধাওয়া করলে ট্রাক থেকে গরু নামিয়ে দিয়ে পালনোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে। তিনি তার গরুগুলো ফিরে পেয়েছেন বলে জানান। শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান, আটক হওয়া ব্যক্তিরা আন্তঃজেলা গরু চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য। এ ঘটনায় ধুনট থানায় মামলা হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password