নওগাঁর বদলগাছীতে গায়ে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে মেরে ফেলার অভিযোগ

নওগাঁর বদলগাছীতে গায়ে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে মেরে ফেলার অভিযোগ

নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলায় মাছ কেনা নিয়ে তর্কাতর্কির জেরে এক কৃষকের গায়ে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। আজ শনিবার (২৩ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার চাকরাইল বটতলীর মোড়ে।

নিহত কৃষক চাকইরাইল গ্রামের মৃত অবির উদ্দিন এর ছেলে শামছুল ইসলাম (৫৪) এবং অভিযুক্ত একই গ্রামের মজনু হোসেন এর ছেলে শিপন হোসেন (৪৫)। সে পোশয় একজন গরু ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় দুপুর ১টার দিকে শিপনকে আসামি করে নিহতের বড় মেয়ে কনিকা খাতুন থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় বটতলী বাজারে শামছুল ইসলাম মাছ কেনার জন্য একটি মাছের দোকানীকে বলছিল যে ৭০টাকা কেজিতে ছোট রুই মাছ কিনতে চাই, হলে দাও। এসময় হঠাৎ করে শিপন এসে শামছুলকে উপহাস করে বলে, এই টাকায় কি মাছ কিনা যাবে, জীবনে কখনো এই টাকায় তুই মাছ কিনেছিস। যা বাড়িতে যা তোর মাছ কেনা লাগবেনা। অঝতা দোকানদারকে বিরক্ত করিস না। এ নিয়ে দু’জনের মাঝে কথা কাটাকাটাটি ও ঝগড়া হয়।

পরে স্থানীয়রা এসে দু’জনকে শান্ত করে সরিয়ে দেয়। এর পর শামছুল ইসলাম বাড়ি যাচ্ছিল সাইকেল নিয়ে । বাজার পার হয়ে ব্রীজের উঠলে পর পেছন থেকে তাকে দুহাত দিয়ে জোড়ে ধাক্কা দেয় শিপন। এতে শামছুল রাস্তায় ছিটকে পড়ে গেলে শিপন দ্রুত চলে যায় সেখান থেকে। এসময় শামছুল মাথায় প্রচন্ড আঘাত পেয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বদলগাছী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করে।

নিহত শামছুল ইসলাম এর মেয়ে বদলগাছী ডিগ্রী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী শারমিন সেতু বলেন, আমার আব্বু রোজা ছিল। ১১টার দিকে গ্রামের শেষ প্রান্তে বটতলী বাজারে গিয়েছিল মাছ কিনতে। মাছ কেনার সময় আমাদের প্রতিবেশি শিপন নামের এক ব্যক্তি আব্বুকে উপহাস করে বলে এত অল্প টাকা দিয়ে মাছ কিনতে এসেছিস। যা বাড়িতে যা। এ নিয়ে আব্বু ও তার মাঝে ঝগড়া হয়। পরে মাছ না কিনেই আব্বু বাইসাইকেল নিয়ে বাড়িতে আসতে লাগলে শিপন পিছন থেকে আব্বুকে ধাক্কা দিলে আব্বু রাস্তায় পড়ে মাথায় প্রচন্ড রকম আঘাত পায়। পরে হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তার জানায় আব্বু অনেক আগেই মারা গেছে।

বদলগাছী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর চিকিৎসক বন্যা বাসাক বলেন, শামছুল ইসলামকে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তিনি মারা যায়। নিহতের মাথায় আঘাতের দাগ রয়েছে। রক্তও বের হচ্ছিল। তিনি মাথায় প্রচন্ড আঘাত পেয়েছিলেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। এখন যেহেতু মামলা হয়েছে বিষয়গুলো পুলিশ তদন্ত করবেন নিশ্চয়। এদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত শিপন হোসেন। নিহত শামছুল ইসলামের বাড়ি থেকে ১০-১২টি বাড়ির পরই শিপনের বাড়ি। দুপুরে তার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় বাড়ির গেটে তালা ঝুলানো। বাড়ির কাউকেই পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল নাম্বারও বন্ধ পাওয়া যায়।

বদলগাছী থানার ওসি (তদন্ত ) রায়হান হোসেন বলেন, মাছ কেনাকে কেন্দ্র করে তর্কবিতর্ক হয়। তারই এক পর্যায়ে শামছুল ইসলাম বাইসাইকেল যোগে বাড়িতে ফিরতে লাগলে শিপন তাকে পেছন থেকে জোড়ে ধাক্কা দিলে মাটিতে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পায়। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে তিনি মারা যান। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওসি আরও বলেন, এ ঘটনায় নিহতের বড় মেয়ে কনিকা খাতুন শিপনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। বর্তমানে শিপন পলাতক আছে। আর ঠিক কিভাবে মারা গেল সে বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে। আমরা ঘটনাটি তদন্ত করছি।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password