নওগাঁর মান্দায় বেরিকেড দিয়ে এক তরুণীকে অপহরণের চেষ্টা

নওগাঁর মান্দায় বেরিকেড দিয়ে এক তরুণীকে অপহরণের চেষ্টা

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় মহাসড়কে বেরিকেড দিয়ে এক তরুণীকে (২১) অপহরণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার (১৩ জুন) দুপুরে নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের ভোলাবাজার মোড়ের অদুরে এ ঘটনা ঘটে। এসময় মহাসড়কে চলাচলরত বাসের যাত্রীরা ওই তরুণীকে অপহরণকারীদের কবল থেকে উদ্ধার করেন। ভুক্তভোগী ওই তরুণী নওগাঁ সদর উপজেলার বাসিন্দা।

জানা গেছে, সোমবার নিজ বাড়ি থেকে ভগ্নিপতি ও বোনের সঙ্গে একই মোটরসাইকেলে নিয়ামতপুর উপজেলায় বোনের বাড়ি যাচ্ছিলেন। ঘটনায় শিকার ওই তরুণী তার আত্মীয়দের নিয়ে বর্তমানে মান্দা থানায় অবস্থান করছেন। ভুক্তভোগী ওই তরুণী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মান্দা উপজেলার মৈনম ইউনিয়নের মংলাপাড়া গ্রামের তাপস কুমার নামে এক যুবক বিভিন্নভাবে তাকে উত্যক্ত করছিলেন। তার পরিবারকে অভিযোগ দিয়েও কোনো কাজ হয়নি। রোববার (১২ জুন) মৈনম বাজার এলাকায় এক ছেলের সঙ্গে আমার আশীর্বাদের দিন ছিল। কিন্তু তাপস কুমার জামাইদের বাড়ি গিয়ে হুমকি-ধামকি দিয়ে বিয়েটি ভেঙে দেন।

ভুক্তভোগী তরুণীর বোন বলেন, বোনের জামাইকে আশীর্বাদের জন্য স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে গত শনিবার বাবার বাড়িতে যাই। এদিন ছেলে পক্ষ হুমকির অভিযোগ তুলে আশীর্বাদের অনুষ্ঠান বাতিল করে দেন। বিয়ে ভেঙে যাওয়ায় সোমবার বোনকে সঙ্গে নিয়ে একই মোটরসাইকেলে শ্বশুর বাড়ি ফিরছিলাম। পথে ভোলাবাজার এলাকায় মহাসড়কে বেরিকেড দিয়ে একদল বখাটে যুবক আমার বোনকে অপহরণের চেষ্টা করে। এসময় মহাসড়কের উভয়পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অবস্থা বেগতিক হওয়ায় বাসের যাত্রীরা প্রতিরোধ করে আমাদের উদ্ধার করেন। এসময় বখাটেরা সটকে পড়েন। ঘটনার সময় বাধা দেওয়ায় আমাকেও লাঞ্ছিত করেন বখাটেরা।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তদন্ত করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্যসমূহ (০)