টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে সাকিব-মাশরাফি

করোনার প্রাদুর্ভাবে লম্বা সময় বন্ধ ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট। মরনব্যাধি এই ভাইরাস পুরো বিশ্ব থেকে চলে না গেলেও, মাস দুয়েক হলো স্বাভাবিক জীবন যাপন শুরু করেছেন অনেকেই। কিছুদিন আগে ক্রিকেটও ফিরেছে মাঠে। শুরুতে স্থগিত হয়ে যাওয়া শ্রীলঙ্কা সিরিজের কথা মাথায় রেখেই প্রস্তুতি শুরু করেন তামিম-মুশফিকরা। সিরিজ না হওয়ায় পরবর্তীতে নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে দু’দিনের দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে লড়েছিল মুমিনুল-মুশফিকরা।

এরপর শুরু হয়েছে বিসিবি প্রেসিডন্টস কাপ। তিন দলে ভাগ হয়ে এই টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছেন মোট ৪৫জন ক্রিকেটার। যার পর্দা নামবে ২৩ অক্টোবর। এরপরই মাঠে গড়াতে পারে ঘরোয়া একটি টি-টোয়েন্টি লিগও। শুরুতে কর্পোরেট লিগ আয়োজনের কথা ভাবলেও শেষ পর্যন্ত তা হবে কিনা সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে এই লিগের পরিবর্তে বিসিবি আয়োজন করতে পারে ৫ দলের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। যেখানে অংশ নেবেন ৭৫জন ক্রিকেটার।

আর এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়েই নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরতে ফিরবেন সাকিব আল হাসান। এই বিষয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘আমরা ৫ দলের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের জন্য ৭৫জন ক্রিকেটারের একটি তালিকা করেছি। যেখানে সাকিব এবং মাশরাফি দুজনই আছেন। দুজনেই টুর্নামেন্টে খেলার কথা রয়েছে।’

তিনবার জুয়াড়িদের কাছ থেকে ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব পেলেও আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটকে না জানানোয় গেল বছর ২৯ অক্টোবর এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন সাকিব। আর ১০দিন পরই শেষ হবে সেই নিষেধাজ্ঞা। যে কারণে আসন্ন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলতে বাঁধা নেই সাকিবের। অন্যদিক করোনা থেকে সেরে ওঠার পর পুরোপুরি ফিট না থাকায় চলমান এই লিগে অংশ নেননি মাশরাফি। তবে আসন্ন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলার জন্য ইচ্ছে পোষণ করেছেন সাবেক এই ওয়ানডে অধিনায়ক।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন