লা লিগার শিরোপা দৌড়ে টিকে রইলো রিয়াল মাদ্রিদ

লিগের আর মাত্র ২ ম্যাচ বাকি। শিরোপার নিষ্পত্তি না হলেও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ কিংবা রিয়াল মাদ্রিদের ঘরেই যে শিরোপা উঠছে তা বলাই যেতে পারে। রিয়াল মাদ্রিদ গতরাতে গ্রানাদাকে ৪-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা লড়াইয়ে চাপ ধরে রাখল আতলেতিকো মাদ্রিদের ওপর। পয়েন্ট খোয়ালেই শিরোপা দৌড় থেকে ছিটকে পরতে হবে। এমন চাপ নিয়েই গ্রানাদার বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল রিয়াল। এর উপর সপ্তাহ দুই আগে বার্সেলোনাকে তাদেরই মাঠে রুখে দিয়েছিল গ্রানাদা তাই গ্রানাদার মাঠে একটু বাড়তি চাপ নিয়েই মাঠে নেমছিল জিদান শিষ্যরা।

প্রতিপক্ষের মাঠে পুরো ম্যাচে আধিপত্য ধরে রেখেই প্রত্যাশিত জয় তুলে নিয়েছে রিয়াল। খেলার প্রথম থেকেই দুই উইং ব্যাবহার করে আক্রমণ করে চলছিল রিয়াল কিন্ত ভুল পাস ও ফিনিশিংয়ের দুর্বলতার কারণে গোল পাচ্ছিল না। ১৭ মিনিটে হঠাৎ করেই লুকা মদ্রিচের গোলে এগিয়ে লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ২৭তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে সুযোগ তৈরি করেছিলেন রিয়ালের তরুণ মার্ভিন পার্ক। তবে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি ২০ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার। ৪৫তম মিনিটে মাঝমাঠ থেকে বল পায়ে ছুটে ডি-বক্সে ঢুকে আরও একবার দুর্বল শটে হতাশ করেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। তবে প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে  মার্ভিনের বাড়ানো বল ধরে ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন রদ্রিগো। ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রিয়াল মাদ্রিদ।

বিরতি থেকে ফিরে কিছুটা ছন্দ পতন হয় রিয়াল মাদ্রিদের। সেই সুযোগে ৭১তম মিনিটে ৩৯ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড মোলিনা গ্রানাদার পক্ষে একটি গোল শোধ করেন। ম্যাচে উত্তেজনা ফিরে আসে। গোল হজম করে রিয়ালের যেন ঘুম ভাঙে। ম্যাচে কোন নাটকিয়তা সৃষ্টি হতে দেয়নি রিয়াল মাদ্রিদ। গোল হজম করার মাত্র দুই মিনিট পর দুই গোল করে ম্যাচ প্রায় শেষ করে দেয় রিয়াল। ৭৫ মিনিটের সময় এডেন হেজার্ডের অ্যাসিস্টে পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে ব্যবধান বাড়ান ওদ্রিওসোলাকে। এর দুই মিনিট পর গ্রানাদার জালে শেষ পেরেকটি ঠুকে দিয়েছেন করিম বেনজেমা। শেষদিকে কয়েকটি সুযোগ সৃষ্টি করেছিল গ্রানাদা তবে ব্যাবধান কমাতে পারেনি তারা। গ্রানাদাকে ৪-১ ব্যাবধানে হারিয়ে লিগে টানা ১৬ ম্যাচ অপরাজিত রইলো রিয়াল মাদ্রিদ।

লিগের ৩৬ ম্যাচ শেষে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে অ্যাতেলিটিকো। সমান ম্যাচে ৭৮ পয়েন্ট দ্বিতীয় স্থানে রিয়াল আর ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে বার্সেলোনা। লিগের শেষ দুই ম্যাচের একটিতেও যদি পা হড়কায় অ্যাটলেটিকোর এবং রিয়াল যদি শেষ দুই ম্যাচের দুটোই জিতে তাহলে তারা চ্যাম্পিয়ন হবে। আর শেষ দুই ম্যাচে জয় পেলে অ্যাটলেটিকোই হবে চ্যাম্পিয়ন।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password