বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা হয়েছিলেন দিয়া

বলিউড অভিনেত্রী দিয়া মির্জা। গত ফেব্রুয়ারিতে প্রেমিক বৈভব রেখিকে বিয়ে করেছেন। বিয়ের মাস পেরুতেই অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর জানান তিনি। এ নিয়ে নেট দুনিয়ায় চলছে আলোচনা।

নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে সোচ্চার দিয়া। এমনকি তার বিয়েও পড়িয়েছেন নারী পণ্ডিত। তাহলে বিয়ের পরেই কেন মা হওয়ার খবর জানালেন এই অভিনেত্রী? বিয়ের আগে কি নারীদের মা হওয়ার অধিকার নেই? দিয়াকে এমনই প্রশ্ন করেন এক ভক্ত।

এর উত্তরে দিয়া বলেন, ‘খুবই মজার প্রশ্ন। প্রথমত, আমাদের সন্তান আসছে দেখেই বিয়ে করছি তা কিন্তু নয়। একসঙ্গে থাকব জন্যই বিয়ে করেছি। যখন বিয়ের পরিকল্পনা করছিলাম তখনেই মা হওয়ার বিষয়টি জানতে পারি। সুতরাং, অন্তঃসত্ত্বা হয়েছি তাই বিয়ে করেছি তা নয়।’

‘রেহনা হ্যায় তেরে দিল ম্যায়’ সিনেমাখ্যাত এই অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘আমরা যতক্ষণ পর্যন্ত এই বিষয়ে নিশ্চিত না হয়েছি ততক্ষণ ঘোষণা দিইনি। এটি আমার জীবনের অনেক খুশির সংবাদ। এর জন্য অনেক বছর অপেক্ষা করেছি। মেডিক্যাল কিছু বিষয় ছাড়া অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটি লুকানোর কোনো কারণ নেই।’

গত ফেব্রুয়ারিতে বৈভব রেখিকে বিয়ের করেন দিয়া। ১ এপ্রিল ফটো ও ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইনস্টাগ্রামে বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করে ভক্তদের মা হওয়ার খবর জানান তিনি। বৈভবের সঙ্গে দাম্পত্য জীবনে এটিই দিয়ার প্রথম সন্তান।

দিয়া অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্তে সিনেমা ‘থাপ্পড়’। বর্তমানে তেলেগু ভাষার ‘ওয়াইল্ড ডগ’ সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত এই অভিনেত্রী। অভিনয়ের পাশাপাশি সমাজকর্মী হিসেবেও পরিচিত তিনি। এছাড়া ইউএনইপি-এর গুডউইল অ্যাম্বাসেডর দিয়া।

এর আগে নির্মাতা সাহিল সাংঘাকে বিয়ে করেছিলেন দিয়া মির্জা। সিনেমার চিত্রনাট্য শোনাতে গিয়ে দিয়ার সঙ্গে সাহিলের ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। এরপর ছয় বছর প্রেম করেন তারা। ২০১৪ সালে বিয়ে করেন দিয়া ও সাহিল। কিন্তু ২০১৯ সালের আগস্টে বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা দেন এই জুটি।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন