স্বাস্থ্য বিধি মেনে রাইড শেয়ারিং সার্ভিস চালুর দাবি

চালকের মতো যাত্রীর মাথায় মানসম্মত হেলমেটের ব্যবস্থা করে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ সাপেক্ষে রাইড শেয়ারিংয়ের মোটরসাইকেল চালুর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংগঠনটির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে যানজট, গণপরিবহন সঙ্কট, পরিবহনে বিশৃঙ্খলা, অরাজকতা, ভাড়া নৈরাজ্য ও যাত্রী সেবার মান তলানিতে পৌঁছেছে। ফলে সময়ের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে মোটরসাইকেলে রাইড শেয়ারিং চালু হয়। বর্তমানে প্রায় ৫ লাখেরও বেশি মানুষের জীবন-জীবিকার একমাত্র উৎস হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে এটি।

মোজাম্মেল আরও বলেন, এছাড়াও প্রায় ১২ লাখ বাইকার রাইড শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে স্বাভাবিক সময়ে সারাদেশে দৈনিক প্রায় ৫০ লাখ ট্রিপ যাত্রী পরিবহন করছে। যানজট, গণপরিবহন সঙ্কটসহ নানা কারণে জরুরি যাতায়াতের প্রয়োজনে যাত্রীদের কাছে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে ওঠা এই বাহনটি করোনা সঙ্কটে বন্ধ করে দেয়ায় জরুরি যাতায়াতের যাত্রীরা বিপাকে পড়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, অন্য গণপরিবহনের চেয়ে অপেক্ষাকৃত কম ঝুঁকিপূর্ণ হলেও সরকারের অদূরদর্শী সিদ্ধান্তে এটি বন্ধ থাকায় যাত্রীদের পাশাপাশি এই পেশায় নিয়োজিত চালকেরা নিদারুণ অর্থ সঙ্কটে পড়েছে। গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মানানো কঠিন হলেও মোটরসাইকেলের ক্ষেত্রে এটি মানানো অনেক সহজতর। এসব কারণে জরুরি-ভিত্তিতে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ সাপেক্ষে রাইড শেয়ারিংয়ের মোটরসাইকেল চালুর দাবি জানান তিনি।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন