জিয়াউর রহমানের জন্মদিনে বিএনপির আয়োজন

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী আগামী ১৯ জানুয়ারি। এ উপলক্ষে দলটি বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানান, শহীদ জিয়ার জন্মবার্ষিকী যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হবে। এ উপলক্ষে নানা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

কর্মসূচিগুলো মধ্যে রয়েছে, ১৯ জানুয়ারি বেলা ১১টায় বিএনপির জাতীয় নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা শেরেবাংলা নগরে জিয়ার মাজারে ফাতেহা পাঠ ও পুষ্পার্ঘ অর্পণ করবেন। ওই দিন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারা দেশের দলীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। জিয়ার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দৈনিক সংবাদপত্রে ক্রোড়পত্র ও পোস্টার প্রকাশ করা হবে। বিএনপির উদ্যোগে কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকায় বিকাল ৩টায় ভার্চূয়াল আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া দলের বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ পেশাজীবী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো শহীদ জিয়ার জীবন ও কর্মের বিভিন্ন দিক নিয়ে চিত্রাঙ্কন, রচনা প্রতিযোগিতা, আলোকচিত্র প্রদর্শন এবং ড্যাবসহ চিকিৎসকদের সংগঠন ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করবে। পাশাপাশি সারা দেশে বিভিন্ন পর্যায়ের ইউনিট নিজেদের সুবিধানুযায়ী জিয়ার জন্মবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনে উদ্যোগ নেবে।

এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বর্তমান ও সাবেক মেয়রের পরস্পরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে দুর্নীতির দমন কমিশন নিশ্চুপ কেন তা জানতে চেয়েছেন রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, সরকারের মেগা মেগা দুর্নীতির মহাসাগর থেকে ছিটেফোঁটা চিত্র দুই-একজনের মুখ দিয়ে বেরিয়ে আসছে। সাঈদ খোকন বলছেন, মেয়র তাপস শত শত কোটি টাকা লুট করেছেন। অপরদিকে মেয়র তাপস বলছেন, শত শত কোটি টাকা লুট করেছেন সাঈদ খোকন। দুই জনই রাজপথে দাঁড়িয়ে প্রকাশ্যে একে অপরেরে দুর্নীতি, লুটপাটের ফিরিস্তি দিচ্ছেন। তবে এটি স্পষ্ট দুজনই লুটেরা, দুজনই দুর্নীতিবাজ। এখন দুদক তামাশা দেখবেন না পদক্ষেপ নেবেন?

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন