১০ এপ্রিল স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের ৫০তম বার্ষিকী

আগামীকাল ১০ এপ্রিল স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের ৫০তম বার্ষিকী। ১৯৭১-এর ১০ এপ্রিল মুজিবনগর থেকে বাংলাদেশের নির্বাচিত গণপ্রতিনিধিগণ ‘স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র’ ঘোষণা করেন। এই ঘোষণাপত্রের ভিত্তিতে ১০ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপরাষ্ট্রপতি এবং তাজউদ্দীন আহমেদকে প্রধানমন্ত্রী করে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠিত হয়।

বাংলাদেশে স্বাধীনতাবিরোধী পাকিস্তানপন্থীরা বোধগম্য কারণেই স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র মানে না। তারা যখনই সুযোগ পায় বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা এবং স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের বিরুদ্ধাচরণ করে। ‘একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি’ গত ১৭ বছর ধরে ১০ এপ্রিল ‘স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র দিবস’ হিসেবে পালন করছে এবং সরকারের নিকট দাবি জানাচ্ছে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র, ’৭১-এর গণহত্যা তথা মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক সত্য অস্বীকারকারীদের শাস্তির জন্য ইউরোপের বিভিন্ন দেশের ‘হলোকস্ট ডিনায়াল এ্যাক্ট’-এর মতো আইন প্রণয়ন করতে হবে। এ বিষয়ে আলোচনার জন্য আগামীকাল আমরা এক আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারের আয়োজন করেছি। 

আগামীকাল ১০ এপ্রিল ২০২১, শনিবার, বিকেল ৩ টায় স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র দিবস উপলক্ষে নির্মূল কমিটির আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারের বিষয়: ‘স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র অস্বীকার রাষ্ট্রদ্রোহিতাতুল্য অপরাধ’। উক্ত ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয় মাননীয় মন্ত্রী এডভোকেট শ. ম. রেজাউল করিম এমপি। ওয়েবিনারে প্রধান বক্তা স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রের রচয়িতা ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম। সভাপতিত্ব করবেন ‘একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি’র সভাপতি লেখক সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির।

সম্মানিত আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নির্মূল কমিটির আইন সহায়ক কমিটির সভাপতি বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, ১৯৭১: গণহত্যা-নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘর-এর সভাপতি বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন, শহীদ ভাষাসৈনিক ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের পৌত্রী সমাজকর্মী আরমা দত্ত এমপি, নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় নেতা ব্যারিস্টার ড. তুরিন আফরোজ, নির্মূল কমিটি আইটি সেল-এর সভাপতি, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ অধ্যাপক মুনীর চৌধুরীর পুত্র আসিফ মুনীর তন্ময়, নির্মূল কমিটির সর্বইউরোপীয় শাখা সভাপতি মানবাধিকার নেতা তরুণকান্তি চৌধুরী, নির্মূল কমিটির যুক্তরাজ্য শাখা সভাপতি সমাজকর্মী নূরুদ্দিন আহমেদ, নির্মূল কমিটির নিউইয়র্ক শাখা সাধারণ সম্পাদক সমাজকর্মী স্বীকৃতি বড়ুয়া, নির্মূল কমিটির আইন সহায়ক কমিটির দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট আসাদুজ্জামান বাবু ও নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন