রাজনীতি

হিজড়ারা সংরক্ষিত নারী আসনে কি সাংসদ হতে পারবেন?

একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য এবার তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) আটজন মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। তবে প্রশ্ন জেগেছে, তারা সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ হতে পারবেন কিনা?আইনজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সংবিধানে তৃতীয় লিঙ্গের কাউকে নারী সাংসদ করার সুযোগ নেই। সংবিধানের সর্বশেষ সংশোধনীর ৬৫ (১)-এর ৩ অনুচ্ছেদে বলা আছে, ‘সংসদে ৫০টি আসন কেবল মহিলা-সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত থাকিবে।’ এমনকি গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশেও (আরপিও) তৃতীয় লিঙ্গের বিষয়ে কিছু উল্লেখ নেই। তারা বলছেন, সংবিধানে সংশোধনী না এনে তৃতীয় লিঙ্গের কাউকে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের সাংসদ করা সম্ভব নয়। যেহেতু সংবিধানেই সে সুযোগ নেই, তাই তাদের কাছে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা যথার্থ হয়নি।সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ বলেন, সংবিধানে বলা হয়েছে, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য কেবল মহিলারা হতে পারবেন। এ কারণে এ আসনগুলোয় অন্য কোনও লিঙ্গের সদস্য হওয়ার সুযোগ নেই। তিনি বলেন, তৃতীয় লিঙ্গের কেউ যদি নারী হিসেবে ভোটার হন, সে ক্ষেত্রে কোনও বাধা না থাকলেও তিনি নারী হিসেবেই বিবেচিত হবেন। তৃতীয় লিঙ্গের হিসেবে নয়।এ বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, এটি একটি জটিল প্রশ্ন। তবে তারা যদি নিজেকে নারী বা মহিলা হিসেবে দাবি করেন, তা হলে কোনও সংকট তৈরি হয় না।আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বিডিটাইপ কে বলেন, এখন মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হচ্ছে। মনোনয়নের বিষয়টি চূড়ান্ত করার ক্ষেত্রে আইনি জটিলতার বিষয়টি আসবে।উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের ফালগুনি, রংপুরের নাদিরা খানম, ময়মনসিংহের আরিফা ইয়াসমিন ময়ূরী, ঢাকার ওয়াহিদুল ইসলাম পার্বতীসহ তৃতীয় লিঙ্গের আটজন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন এবং জমাও দিয়েছেন।

Close