অপরাধ

স্ত্রীকে আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরলেন স্বামী, অতঃপর..

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বেড়াশুলা গ্রামের রাজমিস্ত্রি আদিল উদ্দিন এক প্রবাসির স্ত্রী ঘরে ঢুকে গ্যাড়াকলে পড়েছে। প্রথমে গণধোলাই শেষে পুলিশে হস্তান্তর এবং পরে স্থানীয় মেম্বরের জিম্মায় দেয়া হয়েছে।

প্রিয় পাঠক আমাদের পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন

শনিবার (১৯অক্টোবর) মধ্যরাতে সদর উপজেলার বাঁশের দাইড় নামে গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।

গ্রামবাসি জানান, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়নের বেড়াশুলা গ্রামের রবজেল আলির ছেলে রাজমিস্ত্রি আদিল উদ্দিন একই উপজেলার হলিধানি ইউনিয়নের বাঁশের দাইড় নামে গ্রামে বছর আড়াই আগে এক প্রবাসির বাড়ি তৈরি করতে যান। সেই সুযোগে প্রবাসির স্ত্রীর সাথে পরিচয় ঘটে। এক পর্যায়ে তারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এরই মধ্যে প্রবাসি ওই ব্যক্তি বাড়ি ফিরে আসার পর আরও একটি ঘর তৈরি সিন্ধান্ত নেয়।

আদিল নামের ওই রাজমিস্ত্রিকে দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু স্ত্রী ও রাজমিস্ত্রির আচরনে সন্ধেহ হয় স্বামীর। এক পর্যায়ে গত শনিবার গভীর রাতে রাজমিস্ত্রির সাথে স্বামী ও বাড়ির লোকজন আপত্তিকর অবস্থায় দেখে আটক করে। প্রথমে গণধোলাই শেষে পুলিশে পরে স্থানীয় মেম্বরের জিম্মায় দেয়া হয়।

এ বিষয়ে স্থানীয় মেম্বর গোলাম রসুল জানান, রাতে খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গেলে পুলিশের নিকট থেকে আমরা বিচার শালিশের শর্তে জিম্মায় নিয়ে আসি। পরে তাদের বক্তব্য শুনে জানতে পারি, তারা দীর্ঘ প্রায় দুই বছর পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছে। এই ঘটনার পর স্বামী তার স্ত্রীকে তালাক দিয়েছে। আবার আদিলও তাকে বিয়ে করতে রাজি রয়েছে। তাই তাদের বিয়ে দেয়া হয়েছে।

বিষয়টি এলাকায় মুখোরোচক বিষয় হয়ে পড়েছে।

প্রিয় পাঠক আপনার মতামত জানান

এ বিভাগের আরো খবর

Close
Close