বাংলাদেশ

সংসদে অর্থমন্ত্রী বাজেট পড়তে না পারায় খুশিতে অজ্ঞান নোয়াখালীর ১ যুবক

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল অসুস্থ থাকায় ঠিকঠাক মতো বাজেট পড়তে না পারায় খুশিতে মুস্তাকিম নামে নোয়াখালীর এক যুবক অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে নোয়াখালীর মাইজদীতে এ ঘটনা ঘটে।

প্রিয় পাঠক আমাদের পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, কুমিল্লা এবং নোয়াখালীর মধ্যে দ্বন্দ্ব ঐতিহাসিক। এটা অনেক পুরনো। স্বাভাবিকভাবেই কুমিল্লার সন্তান অর্থমন্ত্রী যখন বাজেট পেশ করছিলেন তখন সারাদেশের চাইতে কুমিল্লা এবং নোয়াখালীতে এ নিয়ে উৎসাহ একটু বেশিই ছিল।

‘একপর্যায়ে জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের (২০১৯-২০২০) জন্য বাজেট উপস্থাপন করতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বারবার আটকে যাচ্ছিলেন। এতে কুমিল্লার প্রতি কটাক্ষ করতে থাকে ওই যুবক। এমনকি উত্তেজনার একপর্যায়ে সে অজ্ঞান হয়ে যায়।

সুমন নামের এক প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, ‘পরে অবশ্য জানা যায়, অর্থমন্ত্রী নিজেও কিছুটা অসুস্থবোধ করছেন। এমনকি তাকে স্পিকারের কাছে ৫ থেকে ৭ মিটি সময় চাইতে দেখা যায়। পরে অর্থমন্ত্রীর অবস্থা বেগতিক দেখে প্রধানমন্ত্রী নিজেই স্পিকারের অনুমতি নিয়ে বাজেট পাঠ করেন। এসব বিষয় জানার পরে ওই যুবককে ধিক্কার জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার বেলা তিনটার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল কালো ব্রিফকেসে বন্দীবাজেট বক্তৃতায় আ হ ম মুস্তফা কামাল বিভিন্ন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে যে বাক্যটি লিখেছেন প্রধানমন্ত্রীকে তা পড়তে হয়।ওই বাজেট বক্তৃতা পাঠ করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাকে ধন্যবাদ।’তিনি হেসে বলেন, ‘‘এই বক্তব্য কিন্তু আমার নয়। আমি অর্থমন্ত্রীর বক্তব্য পড়ছি।এ সময় সংসদে উপস্থিত সবাই করতালি দিয়ে হেসে উঠেন।বাজেট নিয়ে জাতীয় সংসদে প্রবেশ করেন। এর পরপরই স্পিকারের অনুমতি নিয়ে চলতি অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট এবং আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পেশ শুরু করেন অর্থমন্ত্রী। তবে পুরোপুরি সুস্থ না থাকায় তার পক্ষে বাজেট বক্তৃতার আংশিক উপস্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী।

‘সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ: সময় এখন আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের’ শিরোনামে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ‘স্মার্ট’ বাজেট পেশ শুরু করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। নতুন অর্থবছরে বাজেটের প্রস্তাবিত আকার ধরা হয়েছে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা।

প্রিয় পাঠক আপনার মতামত জানান

এ বিভাগের আরো খবর

Close
Close