বিভিন্ন

বিয়ের আগে বরের গন্ধ শুঁকে দেখেন ২৫ জন!

মদের নেশা থাকলে সেই ছেলের সঙ্গে পরিবারের মেয়ের বিয়ে দেয়া যাবে না। তাই ছেলে ও ছেলের পরিবারের সবাইকে পরীক্ষা দিতে হয়। তবে এই পরীক্ষা কোনো লিখিত পরীক্ষা বা ডোপ টেস্ট নয়। রীতিমতো পাত্র ও তার পরিবারের সদস্যদের শ্বাস শুঁকে দেখা হয়, মদের গন্ধ রয়েছে কিনা।

প্রিয় পাঠক আমাদের পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন
বিয়ে ঠিক করার আগে পাত্র ও তার বাড়ির লোককে নিশ্বাসের পরীক্ষা দিতে হয়। কনেপক্ষের অন্তত ২৫ জন শ্বাস শুঁকে দেখেন যে মুখ থেকে মদের গন্ধ বেরোচ্ছে কিনা। পরীক্ষায় পাস করলে তবেই বিয়ে।
চার বছর আগে এই গ্রামে মদের নেশায় মৃত্যু হয় ২০ বছরের কম বয়সী ১৫ জন কিশোরের। তারপরেই এই সিদ্ধান্ত নেন গ্রামের প্রবীণেরা। অন্য কোনোভাবে মদ ছাড়াতে না পারলেও জীবনসঙ্গী পাওয়ার জন্য অনেকেই মদ ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।
পাত্র মদ্যপ হওয়ায় কোনও বিয়ে ভেঙে গেলে সেক্ষেত্রে বরপক্ষকে কনেকে এক লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হয়।
প্রিয় পাঠক আপনার মতামত জানান

এ বিভাগের আরো খবর

Close
Close