অপরাধবাংলাদেশ

নারায়ণগঞ্জে দুই বোন গণধর্ষণের মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

নয় বছর পর নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে দুই বোন গণধর্ষণের মামলায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আদালত প্রত্যেক আসামীকে এক লাখ টাকা করে অর্থদন্ডের আদেশ দেন।আজ মঙ্গলবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ শাহীন উদ্দিন এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় প্রধান আসামি মো. শাহ আলম উপস্থিত থাকলেও অন্য চার আসামি পলাতক ছিলেন। দন্ডপ্রাপ্ত শাহ্ আলম সোনারগাঁয়ে মঙ্গলেরগাঁওেয়র বাসিন্দা।দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামিরা হলেন নারায়ণগঞ্জের সোনারগা উপজেলার মঙ্গলেরগাঁও খোকন মিয়া, এমদাদ হোসেন ও ইকবাল হোসেন এবং হাবিবউল্লার ছেলে জিয়াউল হক জিয়া।আদালত সুত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ২৮ মে লালমনিরহাট জেলা থেকে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে চাচার বাড়িতে বেড়াতে আসে দুই বোন। মঙ্গলেরগাঁও চাচা বাড়ি থেকে চাচার সাথে ওই দিন রাতে পাশ্ববর্তী ফুপুর বাড়িতে যাওয়ার পথে বখাটে শাহ আলম, মো: খোকন মিয়া, এমদাদ হোসেন, ইকবাল হোসেন, জিয়াউল হক জিয়াসহ আরো কয়েকজন মিলে তাদের পথরোধ করে দুই বোনসহ চাচাকে তুলে নিয়ে যায়। পরে একটি নির্জন বাগান বাড়িতে নিয়ে চাচাকে গাছের সাথে বেধেঁ রেখে দুইবোনকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার এক বোন বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় ছয়জনকে আসামি করে মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ছয়জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। আদালত মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তাসহ মোট দশ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে এই রায় দেন। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি লক্ষ্মী চক্রবর্তী ও সাধারণ সম্পাদক হাসিনা পারভীন জানান, চাঞ্চল্যকর এ মামলাটি নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা পরিষদ ভুক্তভোগীদের পক্ষে আদালতে আইনি সহায়তা দেন। জেলা মহিলা পরিষদের পক্ষে বাদী পক্ষে আইনী সহায়তা দেন প্যানেল আইনজীবী জিয়া হায়দার । আসামি পক্ষে ছিলেন মজিবুর রহমান। রায় ঘোষণার সময় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলার লিগ্যাল এইড সম্পাদক সাহানারা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের আরো খবর

Close