অপরাধ

দুষ্টমি করায় মেয়ের সঙ্গে একি করলেন বাবা!

বাচ্চারা তো অল্পস্বল্প দুষ্টমি করবেই। তাই বলে পিটিয়ে তাকে মেরে ফেলতে হবে! বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, নিজের ৪ বছরের মেয়ের সঙ্গে এমনটাই করেছেন এক নিষ্ঠুর বাবা। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজধানী খোদ নয়াদিল্লিতে।

প্রিয় পাঠক আমাদের পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানায়, বুধবার বাবার সঙ্গে যাচ্ছিলো মেয়েটি। এসময় রাস্তায় খানিকটা দুষ্টুমি করে ফেলেছিল সে। এতেই রেগে গিয়ে মেয়েটিকে পেটাতে শুরু করেন তার বাবা। মারের চোটে বাচ্চাটি অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। এরপর মেয়েকে নিয়ে দ্রুত বাড়ি ফিরে আসেন ওই ভদ্রলোক। সংজ্ঞাহীন শিশুকে দিল্লির সঞ্জয় গান্ধী মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যান তার মা। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় দ্বিতীয় স্বামীর বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের সন্তানহারা মা। তিনি বলেন, মেয়েটি নিজের সন্তান না হওয়ায় প্রায়ই শিশুটিকে নাকি মারধর করতেন তার স্বামী দানীশ। বাচ্চাটিকে দু-চক্ষে দেখতে পারতেন না। আর এ কারণেই মেয়েটিকে মারতে মারতে এভাবে মেরেই ফেলেছে। তার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই দানীশের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা মামলা দায়ের করেছে পুলিশ প্রশাসন। শুরু হয়েছে তদন্ত।

ভারতের কন্যা শিশুদের ওপর পরিবারিক সহিংসতা কোনো নতুন ঘটনা নয়। দেশটিতে প্রায়ই শিশু ধর্ষণ ও হত্যার মতে ঘটনা ঘটে থাকে। এর আগে, বিহারের শেখপুরা অঞ্চলে মদের পয়সা চেয়ে না পেয়ে ১৬ দিনের মেয়েকে মাটিতে আছড়ে মেরে ফেলেছিলেন এক বাবা।

হরিয়ানা রাজ্যের কুরুক্ষেত্রে অর্থের অভাবে মেয়ের স্কুলের বেতন দিতে না পেরে ব্যর্থতার ক্রোধে অন্ধ হয়ে ৬ বছরের মেয়েকে শ্বাসরোধ করে খুন করেছিলেন বাবা জসবীর সিং।

প্রিয় পাঠক আপনার মতামত জানান

এ বিভাগের আরো খবর

Close
Close