রাজনীতি

কেন বাতিল হতে পারে বিএনপিসহ ২১ দলের নিবন্ধন?

বাতিল হতে পারে বিএনপিসহ দেশের ২১টি রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন। একাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে এই শঙ্কা বিরাজ করছে দলগুলোর মধ্যে। এ নিয়ে আলোচনা চলছে রাজনীতির অঙ্গনে। নির্বাচন কমিশন ও রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।
সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ কমিশন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, পরপর দুবার জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করলে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন ঝুঁকিতে পড়বে। নিবন্ধন বাতিল হবে কি না, সেটি একটি প্রক্রিয়ার ব্যাপার। এর ক’দিন পর প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বগুড়ায় এক আলোচনা সভায় বলেন, পরপর দুবার নির্বাচনে না এলে বিএনপির নিবন্ধন ঝুঁকিতে পড়বে।
নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ২১টি রাজনৈতিক দল নিবন্ধন ঝুঁকিতে আছে। এগুলো হলো, বিএনপি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বিকল্পধারা বাংলাদেশ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, জাকের পার্টি, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি, গণফোরাম, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল, ঐক্যবদ্ধ নাগরিক আন্দোলন, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এম এল) ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি।
কমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২০০৮ সালে নিবন্ধন প্রথা চালু করে নির্বাচন কমিশন। বর্তমানে নির্বাচন কমিশনে ৩৯টি দল নিবন্ধিত রয়েছে। নবম সংসদ নির্বাচনে ৩৮টি ও দশম সংসদ নির্বাচনে ১২টি (১টি নতুনসহ) দল অংশ নেয়। পরে আরও ৪টি দল দশম সংসদের নানা উপনির্বাচনে অংশ নিয়েছে। বিএনপিসহ বাকি ২১টি দলকে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের নিবন্ধন বাতিলসংক্রান্ত ধারার কথা মাথায় রাখতে হবে।

Close