অপরাধ

এবার উপজেলার চেয়ারম্যানের ভাতিজার অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল!

ডিসিÑ এমপি দেবনাথের পর এবার কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাতিজা ওমর ফারুকের একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।ভিডিওতে উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাতিজা ওমর ফারুকের সাথে এক স্কুল ছাত্রীর অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে বিষয়টি সাজানো দাবি করছেন ওমর ফারুক। গত ০৫ নভেম্বর রাতে সাকিব আল হাসান রুবেল নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে ভিডিও থেকে একটি স্ক্রীনসর্ট পোস্ট দেন। পোস্টটি ব্যাপক আকারে ভাইরাল হয় বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ওমর ফারুক চেয়ারম্যানের ভাতিজা হওয়ার সুবাধে মাদক সেবন থেকে শুরু করে বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিল। শুধু অপকর্ম করে শেষ নয়, মেয়েদের উক্তাক্ত করত। পিতার মৃত্যুর পর জাওনিয়ার চর উচ্চ বিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী পদে চাকরী নেন ওমর ফারুক। চাকরী নেওয়ার পর পাশ্ববর্তী গ্রামের এক ছাত্রীর সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে ওমর ফারুকের।বিষয়টি দীর্ঘদিন গোপন থাকলেও সম্প্রতি ওমর ফারুক ঐ ছাত্রীকে বিবাহের জন্য বার বার ছাত্রীর পরিবারের কাছে চাপ দিতে থাকে ।ছাত্রীর পিতা রাজি না থাকায় ওমর ফারুক ভিডিওটি সবার কাছে ছড়িয়ে দেয়। গত এক সপ্তাহ ধরে উপজেলার চায়ের দোকান থেকে শুরু করে হাট-বাজার সহ বিভিন্ন স্থানে লোকজনের মুখে শুধু ওই ভিডিওর কথাই শোনা যায়। গন টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার সাকিব আল হাসান রুবেল বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত লজ্জা জনক। তিনি তদন্ত সাপেক্ষে ওমর ফারুকের শাস্তি মুলূক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান এই প্রসঙ্গে ওমর ফারুক এই প্রতিবেদক কে বলেন, আমাকে ফাঁসানোর জন্য একটি মহল চেষ্টা চালাচ্ছে। আসলে ভিডিওটি এডিট করা। এ ব্যাপারে রাজীবপুর থানার ওসি রবিউল ইসলাম বলেন, এখনও ওই ছাত্রীর পক্ষে লিখিত অভিযোগ পায়নি। তবে বিষয়টি লোক মুখে শুনেছি।

প্রিয় পাঠক আমাদের পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন
প্রিয় পাঠক আপনার মতামত জানান

এ বিভাগের আরো খবর

Close
Close