মসজিদের মুয়াজ্জিন থেকে যেভাবে সিনেমার ভিলেন 'ডন'!

চলচ্চিত্রের মন্দলোক হিসেবে পরিচিত আশরাফুল হক ডন। দর্শকরা যাকে খলনায়ক ডন হিসেবেই চেনেন। অথচ এই চলচ্চিত্র খলনায়ক হওয়ার আগে মসজিদে আযান দিতেন তিনি। মসজিদের মুয়াজ্জিনের ভুমিকা পালন করতেন।
বগুড়ায় জন্ম ডনের। বাবা প্রয়াত হলেও মা বসবাস করছেন আমেরিকায়। দশ ভাই বোনের মধ্যে সবার ছোট ডন। ১৯৭১ সালে জন্ম নেয়া ডন বগুড়া ছেড়ে ঢাকায় আসার পরই পরিচিত হয় পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের সঙ্গে। তিনিই প্রথম তাকে চলচ্চিত্রে সুযোগ দেন। ছবির নাম ‘লাভ’। কিন্তু ডনের প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’। তখন থেকেই চলচ্চিত্র তার ধ্যান-জ্ঞান হয়ে যায়।
‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবিতে অভিনয়ের সুবাধেই পরিচিত হয় প্রয়াত নায়ক সালমান শাহর সঙ্গে। শুরু হয় তাদের বন্ধুত্বও। চলচ্চিত্র ইন্ডাষ্ট্রিতে ডন সালমান শাহর সবচেয়ে কাছের বন্ধু্টিই ছিলেন। ডনের সঙ্গে গল্প নিয়ে বসলে কোন না কোনভাবে সেখানে সালমান শাহকে নিয়ে স্মৃতি রোমন্থন করবেনই তিনি।
সম্প্রতি বৈশাখী টিভিতে তারকাদের জীবনীভিত্তিক অনুষ্ঠান ‘প্রিয়মুখ’।অনুষ্ঠানের তৃতীয় পর্বে নিজের সম্পর্কে নানা অজানা তথ্য শেয়ার করেন খল অভিনেতা ডন। সেখানেই উঠে আসে তার জীবনের এই অজানা গল্প। জানালেন সালমান শাহর সঙ্গে তার বন্ধুত্বের গল্পও।
সালমান শাহকে নিয়ে স্মৃতি চারণ করতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন ডন। জানান বন্ধু হারানোর বেদনা। প্রিয় বন্ধুটি চলে যাওয়ায় চলচ্চিত্রের অপূরণীয় ক্ষতির কথাও।
সালমান শাহ অভিনীত ২৭টি ছবির মধ্যে ২৪ টিতেই খলনায়কের চরিত্রে অভিনয় করেন ডন। তার অভিনীত হিট ছবির তালিকায় রয়েছে ‘এ জীবন তোমার আমার, বিক্ষোভ, ভালোবাসার মূল্য কত, তোমাকে চাই, ফুলের মতো বউ, বিয়ের ফুল, জীবন সংসার, ভালোবাসা কারে কয়, মহামিলন, মিলন হবে কত দিনে‘র মতো ছবি।
ডন অভিনীত ছবির সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৬শ’। চলচ্চিত্র ছাড়াও বেশ কয়েকটি টিভি নাটকেও অভিনয় করেন তিনি। কৌশিক হোসেন তাপস পরিচালিত ‘কত ভালোবাসি তোমাকে’ টেলিফিল্মে নায়িকা জনার বিপরীতে নায়কও চিলেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি ‘এক জনমের ভালোবাসা’ নামে একটি চলচ্চিত্রও প্রযোজনা করেন।
গড়ে তুলেছেন ব্যান্ড দল ‘আর্কাইভ’। জড়িত আছেন নানা রকম সামাজিক কর্মকাণ্ডে। এক সময় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেন তিনি।

বিডিটাইপ সংবাদের লেখক হতে পারেন আপনিও। আপনার আশপাশে ঘটে যাওয়া যেকোনো ঘটনা, ভ্রমণ অভিজ্ঞতা, ক্যাম্পাসের খবর, তথ্যপ্রযুক্তি, বিনোদন, শিল্প-সংস্কৃতি ইত্যাদি বিষয়ে লেখা পাঠান: [email protected] ই-মেইলে।

মন্তব্যসমূহ (০)


লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন