শিরোনাম
হোম / বাংলাদেশ / খাদ্য নিশ্চিত, বইখাতাও নতুন দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী (ভিডিও)
খাদ্য নিশ্চিত, বইখাতাও নতুন দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

খাদ্য নিশ্চিত, বইখাতাও নতুন দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী (ভিডিও)

বন্যাদুর্গত এলাকায় প্রত্যেক মানুষের খাদ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। এছাড়া যেসব স্কুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেগুলো মেরামত করা হবে আর যেসব শিক্ষার্থীদের বইখাতা নষ্ট হয়েছে তাদেরকে আবার নতুন বইখাতা দেয়া হবে। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শনিবার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় বানভাসি মানুষের মধ্যে ধানের চারা ও ত্রাণ বিতরণ শেষে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
তিনি বলেন, আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বন্যার আগাম খবর সরকার জেনেছে। খাদ্যের অভাব যাতে না হয় সেজন্য আগেই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বানভাসি একটি মানুষও যেন না খেয়ে কষ্ট না পায় সেটাই সরকারের লক্ষ্য।
শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা মনোবল হারাবেন না। প্রধানমন্ত্রী সব সময় আপনাদের পাশে আছে। আপনাদের সেবা করাই আমাদের একমাত্র কাজ। সরকারে থাকি আর বিরোধী দলে থাকি মানুষের বিপদে সবসময় আওয়ামী লীগ পাশে দাঁড়িয়েছে।
শেখ হাসিনা বলেন, বন্যায় রাস্তাঘাট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সেগুলো মেরামতের ব্যবস্থা করছেন। শিগগিরই বন্যা দুর্গত এলাকার রাস্তাঘাটও দ্রুতই ঠিক করা হবে বলে তিনি জানান।
বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ যেন সুন্দরভাবে বাঁচতে পারে, সেই লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।
বিএনপির জ্বালাও পোড়াওয়ের সমালোচনা করে তিনি বলেন, যারা আগুন দিয়ে মানুষকে পুড়িয়ে মারে, তারা এ দেশের কল্যাণ করতে পারে না। ধ্বংস করতে পারে।
তিনি বলেন, গতবারের নির্বাচনে না গিয়ে বিএনপি ভুল করেছে। তারা গাইবান্ধা ও গোবিন্দগঞ্জে তাণ্ডব চালিয়েছে। এমপি লিটনকে হত্যা করেছে। আমরা রাস্তা বানাই তারা নষ্ট করে।
গাইবান্ধা-৪(গোবিন্দগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, ত্রাণ ও দুর্যোগমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও গাইবান্ধা-২(সদর) আসনের এমপি মাহাবুব আরা বেগম গিনি, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ শামস-উল আলম হিরু, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন।
এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মী।
ত্রাণ বিতরণ শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা মিলনায়তনে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সুধী সমাজ ও বন্যা ব্যবস্থাপনা সংশ্লিষ্ট সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

Facebook Comments

About Kalam Khan

www.myhostit.com