শিরোনাম
হোম / বাংলাদেশ / বনের_পশুর_সাথে_করুন_মনের_পশুরে_কোরবানি।

বনের_পশুর_সাথে_করুন_মনের_পশুরে_কোরবানি।

ইসলামি বিধান মতে, সামর্থ্যবান মুসলমানদের প্রতি বছর জিলহজ মাসের ১০ থেকে ১২ তারিখে আনুষ্ঠানিকভাবে পশু জবেহর মাধ্যমে নিজেকে মহান আল্লাহর নিকট পরিপূর্ণভাবে সমর্পণ করতে হয়। তবে শুধু পশু জবেহ করার নাম কোরবানি নয়, বনের পশু জবেহের আগে মনের পশু জবেহ করতে হয়।

অর্থাৎ মনের মধ্যে লুকায়িত হিংসা-বিদ্বেষ, কাম-ক্রোধ, লোভ-লালসাসহ সব প্রকার অসৎ, পাপচিন্তা নির্মূল করতে হয়। তাই কোরবানির মাধ্যমে মানুষের ষড়রিপুর পাশবিক শক্তির বিনাশ করে মানসিক শক্তির বিকাশ সাধন করতে হয়।

এভাবেই মানবাত্মা বিশুদ্ধ, নির্মল, পবিত্র ও উন্নত হয়। কোরবানির মূল উদ্দেশ্য সর্বাধিক প্রিয় বস্তু ত্যাগের মাধ্যমে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন ও আত্মা বিশুদ্ধকরণ। আর এ উদ্দেশ্য সাধনে পশু জবেহ উপলক্ষ মাত্র।

কোরবানির মাধ্যমে আল্লাহর প্রতি বান্দার আনুগত্য-নিষ্ঠা ও ত্যাগের পরীক্ষা হয়। মোমিনের মাঝে জেগে ওঠে পূর্ণ তাকওয়া, ভালোবাসা আর পবিত্রতা। কোরবানি খুব বড় রকমের নেক কাজ।

হাদিস শরিফে আছে- ‘কোরবানির জানোয়ারের রক্ত মাটিতে পড়ার পূর্বেই আল্লাহ তা কবুল করে নেন।’ ত্যাগের উজ্জ্বলতায় ব্যক্তি,সমাজ ও রাষ্টীয় জীবনে মানবতা দীপ জ্বালিয়ে মধুর বসন্তে উদ্ভাসিত হোক মানব সভ্যতা।

Facebook Comments

About Kalam Khan

www.myhostit.com