৬ মাসে বিদেশে প্রাণ হারিয়েছেন ১৭৫৭ প্রবাসী

বিভিন্ন দেশে বাড়ছে প্রবাসী মৃত্যুহার। চলতি বছরের(২০১৭ সাল) জুন মাস পর্যন্ত ১ হাজার ৭শ’ ৫৭জন প্রবাসী বাংলাদেশির মরদেহ দেশে ফেরত আনা হয়েছে। এরমধ্যে হযরত শাহ জালাল বিমান বন্দর দিয়ে ১৫৫৩ জনের মরদেহ, চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দর দিয়ে এসেছে ১৭৬ এবং সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে ২৮ জনের মরহেদ এসেছে।

এরমধ্যে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, হৃদরোগ, কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনা, খুন, সড়ক দুর্ঘটনা কিংবা ক্যানসারে মৃত্যুজনিত মরদেহ রয়েছে। এদিকে ২০১৬ সালে বছরজুড়ে মরদেহ এসেছিল ৩ হাজার ৪শ ৮১ জনের।

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের সবশেষ পরিসংখ্যান থেকে এ তথ্য পাওয়া যায়। ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের তথ্য ও জনসংযোগ সহকারি পরিচালক মো. জাহিদ আনোয়ার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এসব মৃত্যুর জন্য অতিরিক্ত অভিবাসন ব্যয়কে দায়ী করছেন। তারা বলছেন, খরচ করা টাকা উপার্জন করার জন্য তারা অতিরিক্ত পরিশ্রম এবং মানসিক চাপে থাকেন। প্রবাসী মৃত্যুর অন্যতমও কারণ এটি।

দেশের ৩টি বিমানবন্দর দিয়ে আসা মরদেহের হিসেব থেকে জানা যায়, ২০০৫-২০১৭ সাল পর্যন্ত দেশে ৩১ হাজার ৭শ’ ১৫ জন প্রবাসীর মরদেহ দেশে এসেছে।

এরমধ্যে হযরত শাহ জালাল বিমানবন্দরে ২৮ হাজার ৪শ’ ৩৭ জনের, চট্টগ্রাম শাহ্ আমানতে ২ হাজার ৮শ’ ৫৮ জনের, সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৪শ’ ৩০ জনের মরদেহ এসেছে।

Loading...