অপরাধআন্তর্জাতিক

১২ বছরে ৫০০০ অন্তত শিশু অদল-বদল করেছেন এই নার্স!

জাম্বিয়ার একটি হাসপাতালের নার্স তার ১২ বছরের চাকরি জীবনেই অন্তত ৫ হাজার শিশু অদল-বদল করেছেন বলে স্বীকার করেছে বলে জানান। জাম্বিয়ার ইউনিভার্সিটি টিচিং হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগের ওই নার্সের নাম এলিজাবেথ মুয়েআ। জাম্বিয়ার অবজারভারের এক খবরে বলা হয়েছে, এলিজাবেথ নামে ওই নারী বর্তমানে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এই ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে হাসপাতালের বেডে শুয়ে এলিজাবেথ বলেন, আমি ক্যানসারে আক্রান্ত এবং খুব শিগগিরই মারা যাব। তবে মারা যাওয়ার আগে আমি আমার অপরাধ স্বীকার করে ক্ষমা পেতে চাই, বিশেষ করে ঈশ্বরের কাছে এবং সেইসব লোকদের কাছে যারা ইউনিভার্সিটি টিচিং হাসপাতালে সন্তান জন্ম দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমি আমার কর্মজীবনের ১২ বছরে (১৯৮৩-১৯৯৫) অন্তত ৫০০০ হাজার শিশুকে অদল-বদল করে দিয়েছি। এবং আমি এটা করেছি স্রেফ মজা করার জন্য। তবে কৃত অপরাধের জন্য আমি এখন অনুতপ্ত। আমি চাই ঈশ্বর এবং জাম্বিয়ানরা আমাকে ক্ষমা করুক’।

তিনি আরও বলেন, অনেক স্বামী সন্তানের ডিএনএ টেস্টের পর তাদের স্ত্রীকে তালাক দিয়েছেন। আমার এ কৃতকর্মের কারণে বাধ্য হয়ে অনেক মা সেসব শিশুদের বুকের দুধ পান করিয়েছেন, যারা আ-দৌ তাদের সন্তান না। আমি এ অপরাধের জন্য নরকে যেতে চাই না।সবাই আমাকে ক্ষমা করে দিবেন।

এ বিভাগের আরো খবর

Close