হজরতুল্লাহর ১২ বলে ফিফটি তবু ম্যাচ সেরা গেইল

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

স্টুয়ার্ট ব্রডের ছয়টি বলই বাউন্ডারির ওপারে মেরেছিলেন যুবরাজ সিং। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংলিশ পেসারের ওই ওভারের ছয়টি বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে শিরোনাম হয়েছিলেন ভারতের এই তারকা অলরাউন্ডার। দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবানে সেদিন ১২ বলে হাফসেঞ্চুরিও করেছিলেন যুবরাজ। যেটি টি-টোয়েন্টিতে দ্রুততম হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড। যুবির সঙ্গে সেই রেকর্ডে ভাগ বসালেন এক ২০ বছর বয়সী তরুণ। সোমবার আফগান প্রিমিয়ার লিগে (এপিএল) কাবুল জওয়ানের ওপেনার হজরতুল্লাহ জাজাই। ছয়টি ছক্কা মেরে তুলে নিয়েছেন দ্রুততম হাফসেঞ্চুরি। তবে ব্রডের জন্য রয়েছে সুখবর। ইংল্যান্ডের সাবেক এই অধিনায়কের এক ওভারে ৩৬ রান খরচের লজ্জার রেকর্ড ভেঙেছেন বালখ লিজেন্ডের স্পিনার আবদুল্লাহ মাজারি। ৬ বলে ৬টি ছক্কা ও একটি ওয়াইডসহ মোট ৩৭ রান দিয়েছেন ৩১ বছর বয়সী এই বোলার। টুর্নামেন্টের ১৪তম ম্যাচে টস জিতে শুরুতে ক্রিস গেইল, দিলশান মুনাউইরা ও দারওয়াইস রাসুলি ও মোহাম্মদ নবীদের রান বৃষ্টির সুবাদে ২৪৪ রানের বড় স্কোর করতে সক্ষম হয় লিজেন্ডরা।শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ২৪৫ রানের বিশাল লক্ষে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১২ বলে হাফসেঞ্চুরি করে যুবরাজের পাশে নিজের নাম লেখেন হজরতুল্লাহ জাজাই। মাত্র ১৭ বলে সাতটি ছক্কা ও চারটি চারে ইনিংসটি সাজান ডান-হাতি এই ব্যাটসম্যান। ৩৬৪.৭০ স্ট্রাইক রেটে ৬২ রানে ঝড়ো ইনিংস খেলে থামেন এই আফগান ব্যাটসম্যান। হজরতুল্লাহর অসাধারণ নৈপুণ্যেও জয় আসেনি জওয়ানদের পক্ষে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ২২৩ রানে থামে ইনিংসটি। ২১ রানে হার মানতে হয় রশিদ খান নেতৃত্বাধীন দলটিকে।চমৎকার এক ইনিংস খেলেও ম্যাচ সেরা হতে পারেননি হজরতুল্লাহ। লিজেন্ডদের হয়ে ৪৮ বলে ৮০ রানের ইনিংস খেলে ক্রিস গেইল জিতে নেন এই পুরস্কার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং দানব এদিন ১০টি ছক্কা ও দুটি চার মেরেছেন।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.