সুবোধ তুই পালিয়ে যা,ভুলেও ফিরে আসিস না

 দেবনাথ নারায়ন
সময়ের সেবাদাস না হয়ে সুবোধ তুই পালিয়ে যা।যারা দেয়ালের লিখন বুঝে না তাদের কপালেই থাকে ইতিহাসের অন্তিম শয্যা।এ পর্যন্ত সব ধরনের অত্যাচার অবিচার খুন গুম নিরুদ্দেশের কিনারা হয়েছে দেয়ালের লিখনেই।
কিন্ত কি আশ্চর্য সময় কথা বলে না ভবিষ্যৎ থাকে ভবিতব্যে তারপরও না পালিয়ে উপায় কি।সুবোধ তুই পালা।এ যে রাজার রাজা তুই পালা।যে কাজে পুরোটাই কর্তার ইচ্ছায় কর্ম তাতে গর্বের কিছু নেই আছে কেবল আত্মগ্লানি সেখানে তোর কোন কাজ নেই।সূর্যাস্তের সামনে দাঁড়িয়ে এ নিয়ে বিলাপ বা আক্ষেপ করার কোন অর্থ হয় না।
তাই তুই পালা।গনতন্ত্র ব্যক্তি স্বাধীনতা, স্বাধীন মত প্রকাশের অধিকার কিংবা স্বাধীন বিচারবিভাগ কেবল সংবিধানে ছাপা অক্ষরেই লিপিবদ্ধ থাক।অতন্দ্র প্রহরায়  বারো মাস তিরিশ দিন চোখের মনির মত কাকে রক্ষা করতে চাও সুবোধ সেই কর্তব্যটি এখন আর তোর আয়ত্তে নেই।পালা সুবোধ পালা।
যৎকিঞ্চিত যে ভজ-গৌরাঙ্গ দলের কীর্তনিয়া হয়েছিলে এবার ভোর রাগিণী ধরে পালা।হরি দিন তো গেল সন্ধ্যা হল পার কর আমায়।পালা সুবোধ পালা নইলে নিজের পরিচয় নিজে দিতে লজ্জাবোধ হবে।চোখ কান বিবেক বুদ্ধি সব কিছু শিকেয় তুলে পালা সুবোধ পালা।
                    লেখক পরিচিতি:-দেবনাথ নারায়ন
   সাবেক সাধারন সম্পাদক-পলাশ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সাংবাদিক
Loading...