সিট প্লানিং অনুযায়ী বিপিএলে খেলা দেখতে হবে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএলের পঞ্চম আসরে সব ধরনের শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ঠদের নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। বিপিএল চলাকালীন সময় ডিএমপির পক্ষ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ম্যাচে সিট প্লানিং অনুযায়ী সকলকে বসে খেলা দেখতে হবে বলেও জানান তিনি। বুধবার ডিএমপি হেডকোয়ার্টাসে বিপিএল আয়োজন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আইন-শৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সভায় সভাপতির বক্তব্যে ডিএমপি কমিশনার এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, পুলিশ ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবির সঙ্গে সমন্বয় করে সকল ফ্রাঞ্চাইজিদের কাজ করতে হবে। দলের কর্মী বা সমর্থকরা কোনোভাবে মাঠে শোডাউন করতে পারবে না।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, টিকিট ছাড়া কোনো লোক যাতে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য বিসিবিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সিট প্লানিং অনুযায়ী দর্শকদের নিজ নিজ আসনে বসতে হবে। নিজ আসন ছাড়া অন্য জায়গায় বসা যাবে না। এতে শৃঙ্খলা নিশ্চিত থাকবে।

তিনি বলেন, যেসব হোটেলে প্লেয়ার থাকবে সেসব হোটেলে কোনো প্রকার ডিজে পার্টি হবে না। হোটেলগুলোতে থাকতে হবে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা। থাকতে হবে সিসি ক্যামেরা, আর্চওয়ে, লাগেজ স্ক্যানারসহ মেটাল ডিটেক্টর ব্যবস্থা।

এছাড়া কোনো অতিথি খেলা চলাকলীন সময় প্লেয়ারদের সঙ্গে দেখা করতে হোটেলে তাদের রুমে যেতে পারবে না। প্রয়োজনে হোটেল লবিতে দেখা করবে। হোটেলে বহিরাগতদের গাড়ি পার্কিং যাতে না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হোটেল কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার।

তিনি আরও বলেন, টিকিট কালবাজারি ঠেকাতে প্রস্তুত থাকবে ডিবি ও পোশাকধারী পুলিশ। পর্যাপ্ত ছেলে ও মেয়ে ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করবে বিসিবি। খেলা ও অনুশীলনের পূর্বে এসবি ও র‍্যাব দিয়ে ভেন্যু সুইপিং করা হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ গোয়েন্দা সংস্থা, বিভিন্ন সেবাদানকারী সংস্থা, বিসিবি ও টিম ফ্রাঞ্চাইজির প্রতিনিধিরা।

আগামী ৪ নভেম্বর থেকে বিপিএল খেলা শুরু হবে। শেষ হবে ১৩ ডিসেম্বর। তিন পর্বে খেলা হবে এ লিগ। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৪ নভেম্বর থেকে ৮ নভেম্বর হবে সিলেট পর্ব। চট্টগ্রাম জহুর আহম্মেদ চৌধুরী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ২৪ নভেম্বর থেকে ২৯ নভেম্বর হবে চট্টগ্রাম পর্ব। শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম মিরপুরে ১১ নভেম্বর থেকে ২১ নভেম্বর এবং ২ ডিসেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর হবে ঢাকা পর্ব। ঢাকা ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বিপিএলের ফাইনাল ম্যাচ। রিজার্ভ ডে হিসেবে ১৩ ডিসেম্বরকে রাখা হয়েছে।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ‘ঝিনুকদহ ভাষা পরিষদের’ ঘোষিত তিন দিনের কর্মসূচী সফল ভাবে পালিত

» শুভ জন্মদিন- সাদিদুল ইসলাম (সাদিদ)

» কে এই সুন্দরী পুলিশ অফিসার

» চাকরি শুধু নগ্ন হয়ে বসে থাকা, বেতন জানলে চমকে যাবেন

» জামিনে এনে আসামিকে বিয়ে, আইনজীবীকেই হত্যা!

» চসিকের গৃহকর আপিল শুনানি ও অ্যাসেসমেন্ট স্থগিত

» ঝিনাইদহে ‌ঝিনুকদহ ভাষা পরিষদ-র অালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» পৃথিবীর বাইরে প্রাণের সন্ধান !

» গ্রাম থেকে আসা সেই মানশি এখন কোটি কোটি তরুণীর আদর্শ!

» সিএনজি অটোরিকশাও মিলবে অ্যাপে, ঘোষণা শিগগিরই

» মাগুরায় চলছে অবৈধ সিমের বাজার

» আয়ুর্বেদিক উপাদান হিসেবে নিম পাতার ব্যবহার

» চাঁদে ৫০ কিলোমিটার সুড়ঙ্গের হদিস মিলেছে

» আইফোন এক্সের ভেতরে যা রয়েছে ভিডিও সহ দেখুন

» নেকলেস পরার সঠিক কায়দা-কানুন

Design & Devaloped BY MyhostIT

,

সিট প্লানিং অনুযায়ী বিপিএলে খেলা দেখতে হবে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএলের পঞ্চম আসরে সব ধরনের শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ঠদের নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। বিপিএল চলাকালীন সময় ডিএমপির পক্ষ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ম্যাচে সিট প্লানিং অনুযায়ী সকলকে বসে খেলা দেখতে হবে বলেও জানান তিনি। বুধবার ডিএমপি হেডকোয়ার্টাসে বিপিএল আয়োজন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আইন-শৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সভায় সভাপতির বক্তব্যে ডিএমপি কমিশনার এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, পুলিশ ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবির সঙ্গে সমন্বয় করে সকল ফ্রাঞ্চাইজিদের কাজ করতে হবে। দলের কর্মী বা সমর্থকরা কোনোভাবে মাঠে শোডাউন করতে পারবে না।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, টিকিট ছাড়া কোনো লোক যাতে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য বিসিবিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সিট প্লানিং অনুযায়ী দর্শকদের নিজ নিজ আসনে বসতে হবে। নিজ আসন ছাড়া অন্য জায়গায় বসা যাবে না। এতে শৃঙ্খলা নিশ্চিত থাকবে।

তিনি বলেন, যেসব হোটেলে প্লেয়ার থাকবে সেসব হোটেলে কোনো প্রকার ডিজে পার্টি হবে না। হোটেলগুলোতে থাকতে হবে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা। থাকতে হবে সিসি ক্যামেরা, আর্চওয়ে, লাগেজ স্ক্যানারসহ মেটাল ডিটেক্টর ব্যবস্থা।

এছাড়া কোনো অতিথি খেলা চলাকলীন সময় প্লেয়ারদের সঙ্গে দেখা করতে হোটেলে তাদের রুমে যেতে পারবে না। প্রয়োজনে হোটেল লবিতে দেখা করবে। হোটেলে বহিরাগতদের গাড়ি পার্কিং যাতে না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হোটেল কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার।

তিনি আরও বলেন, টিকিট কালবাজারি ঠেকাতে প্রস্তুত থাকবে ডিবি ও পোশাকধারী পুলিশ। পর্যাপ্ত ছেলে ও মেয়ে ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করবে বিসিবি। খেলা ও অনুশীলনের পূর্বে এসবি ও র‍্যাব দিয়ে ভেন্যু সুইপিং করা হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ গোয়েন্দা সংস্থা, বিভিন্ন সেবাদানকারী সংস্থা, বিসিবি ও টিম ফ্রাঞ্চাইজির প্রতিনিধিরা।

আগামী ৪ নভেম্বর থেকে বিপিএল খেলা শুরু হবে। শেষ হবে ১৩ ডিসেম্বর। তিন পর্বে খেলা হবে এ লিগ। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৪ নভেম্বর থেকে ৮ নভেম্বর হবে সিলেট পর্ব। চট্টগ্রাম জহুর আহম্মেদ চৌধুরী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ২৪ নভেম্বর থেকে ২৯ নভেম্বর হবে চট্টগ্রাম পর্ব। শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম মিরপুরে ১১ নভেম্বর থেকে ২১ নভেম্বর এবং ২ ডিসেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর হবে ঢাকা পর্ব। ঢাকা ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বিপিএলের ফাইনাল ম্যাচ। রিজার্ভ ডে হিসেবে ১৩ ডিসেম্বরকে রাখা হয়েছে।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



   

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিতঃ ২০১৭ । বিডি টাইপ পত্রিকা আগামী প্রজন্মের মিডিয়া

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি