সমাবেশে মারামারি আর স্টেজে সেলফি, এটাই বিএনপি: কাদের

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

এত হাকডাকের জনসভা দেখলাম, আজকেই তাদের সক্ষমতা দেখলাম। সমাবেশে মারামারি-হাতাহাতি দেখলাম। আসলে সমাবেশে মারামারি আর স্টেজে সেলফি, এই হলো বিএনপি।
বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
রোববার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সংজ্ঞা তুলে ধরেন।
সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নেতিবাচক রাজনীতির কারণে বিএনপি জনগণের সমর্থন হারিয়েছে। যেটির প্রমাণ আজ তাদের জনসভায় পাওয়া গেছে।’
তিনি দাবি করেন, বিগত কয়েক দিনে আওয়ামী লীগের পথসভায় যে উপস্থিতি দেখা গেছে, বিএনপির জনসভার উপস্থিতি তার ধারেকাছেও হয়নি।
তিনি আরও বলেন, বিএনপি গণতান্ত্রিক শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করলে আমরা রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করব। তবে ২০১৪ সালের মতো সহিংসতা করলে প্রশাসনিকভাবে যা যা করা দরকার, করা হবে। আমাদের নেতাকর্মীরা নিশ্চয় ঘরে বসে ডুগডুগি বাজাবে না, সমুচিত জবাব দেবে।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ডা. দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বাহাউদ্দীন নাছিম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ।
সভা শেষে জানানো হয়, আগামীকাল সোমবার থেকে টানা সাত দিন ঢাকাসহ সারাদেশে গণসংযোগ করবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। সোমবার চারটি টিমে ঢাকার চারটি থানায় এই জনসংযোগ করা হবে।

ফেসবুক মন্তব্য
Share.