বিনোদন

সবাই যদি ধর্ষণের বিরুদ্ধে হয়, তবে ধর্ষণকারী কে? ইউটিউবার সালমান

সবাই যদি ধর্ষণের বিরুদ্ধে হয়, তবে ধর্ষণকারী কে জানতে চেয়েছেন ইউটিউবার সালমান মুক্তাদির। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ধর্ষণ বিষয়ে একটি ভিডিও আপলোড করেন তিনি। সেখানেই সকলের উদ্দেশে এই প্রশ্ন করেন সালমান।

প্রিয় পাঠক আমাদের পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন

ভিডিওতে সালমান বলেন, আমরা সবাই যদি ধর্ষণের বিরুদ্ধে হই, সবার ফেসবুক পোস্ট ও স্ট্যাটাসের দিকে তাকাই, সবাই রেপকে এত ঘৃণা করে তাহলে রেপটা করতেছে কে? যার সঙ্গে কথা বলি, সবাইকেই দেখি ধর্ষণের বিরুদ্ধে। রেপের কোনো ঘটনা ঘটলে সবাই ধর্ষণের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দিয়ে ফাটিয়ে দিচ্ছে। অনেকেই লিখছে, মানুষ কি আর মানুষ নাই। পুরুষ কী পশু হয়ে গেল নাকি?

আমার কাছে বিষয়টা সাধারণ মনে হয়, বাংলাদেশের মতো একটি দেশে ধর্ষণ হবে, এটা খুবই স্বাভাবিক। বাংলাদেশে ধর্ষণ হওয়াটা খুবই সাধারণ। কেন বাংলাদেশে ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে? আমরা-আপনারা মিলে বাংলাদেশে ধর্ষকদেরকে প্রশ্রয় দিয়ে গেছি। আমি সবসময় বিতর্কিত বিষয় নিয়ে কথা বলি। এটাও তো একটা বিতর্কিত বিষয়। তাই এটা নিয়ে কথা বলা উচিত।

ধর্ষণ করতেছে কারা? সবাই যদি ধর্ষকদের বিরুদ্ধে হয়? কারা করতেছে? উত্তর, আপনারা। আপনারা ধর্ষকদের প্রশ্রয় দিয়ে ধর্ষণের সংখ্যাটা বাড়াচ্ছেন। সাধারণ মানুষের কাছে ধর্ষণের বিষয়টা এখন সাধারণ হয়ে গেছে।

এ সময় আজ সকালে তার সামনেই দুই বান্ধবীকে ধর্ষণের মতোই তিক্ত অভিজ্ঞতা পেতে হয়ে জানান সালমান। তিনি জানান, সকাল আটটার দিকে ওই দুই বান্ধবীকে নিয়ে নাস্তা খেতে যাচ্ছিলেন তিনি। পথে তাদের গাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়া স্কুল-কলেজের একটি বাস থেকে এক বান্ধবীকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীল-অশ্রাব্য বাক্য ছোঁড়া হচ্ছিল।

সালমান বলেন, এটা আমার হৃদয় ভেঙে দিয়েছে। এ ঘটনায় আমার রাগে-ক্ষোভে গা জ্বলছিল। আমি আজকে প্রমাণ পাইলাম কেন বাংলাদেশে এত ধর্ষণের ঘটনা ঘটতেছে।

প্রিয় পাঠক আপনার মতামত জানান

এ বিভাগের আরো খবর

Close