শিক্ষণীয়

একজন লোক মাত্র বিয়ে করে তার স্ত্রীকে সাথে নিয়ে বাড়িতে ফিরছিল। তারা যখন নৌকা দিয়ে নদী পার হচ্ছিল, তখন হঠাৎ একটি বড় ঝড়ের কবলে পড়েছিল। লোকটি ছিল একজন সাহসী যোদ্ধা, কিন্তু তার স্ত্রী খুব ভীত হয়ে ওঠে যেহেতু নৌকাটি ছিল ছোট এবং যে কোন মুহূর্তে তারা নিমজ্জিত হতে যাচ্ছে এতে সে খুব নিরাশ হয়ে পড়ল। কিন্তু লোকটি তখনও নীরব এবং শান্ত ছিলেন যেন কিছুই ঘটে নি।

স্ত্রীটি আতঙ্কগ্রস্ত এবং কম্পিত কন্ঠে জিজ্ঞেস করল, “আপনি কি
ভীত নন? এটাই আমাদের জীবনের শেষ মুহূর্ত হতে পারে! শুধুমাত্র কিছু অলৌকিক ঘটনা আমাদের রক্ষা করতে পারে। অন্যথায় মৃত্যু নিশ্চিত!”
লোকটি হাসতে হাসতে তার তলোয়ারটি খোলস থেকে বের করল। স্ত্রীটি আরো আতঙ্কিত হয়ে পড়ল। সে আসলে কি করতে যাচ্ছে? তারপর সে তার খোলা তলোয়ারটি তার স্ত্রীর প্রায় গলাকে স্পর্শ করে ধরে রাখল এবং বলল, “তুমি কি ভয় পাচ্ছ?” তার স্ত্রী হাসতে শুরু করল আর বলল “আমি কেন ভয় পাব? তলোয়ারটি তো আপনার হাতে! কেন আমি ভয় পাব? আমি জানি যে আপনি আমাকে অনেক ভালোবাসেন।”

সে তলোয়ারটি খোলসের ভিতর রাখতে রাখতে বলল, “তুমি আমার উত্তর পেয়ে গেছো!
আমি জানি, আল্লাহ আমাদের ভালবাসেন এবং ঝড় তাঁরই হাতে। তাই যাহা কিছুই হতে যাচ্ছে ভালোই হবে। যদি আমরা বেঁচে থাকি, ভালো। আর না বাচলেও, ভালো। কারণ সবকিছু তাঁর হাতে এবং তিনি কোন ভুল কিছু করতে পারেন না।

” সুতরাং সৃষ্টিকর্তার উপর বিশ্বাস রাখুন। তিনি যা করেন আমাদের ভালোর জন্যই করেন।
হে আল্লাহ! আমাদেরকে আপনার প্রত্যেকটি পরীক্ষা ধৈর্য্যের সাথে মোকাবেলা করার তাওফিক দান করুন । ___আমিন।
– সংগৃহীত

Loading...